• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

রাজধানীজুড়েই ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে নিম্নমানের রুটি-বিস্কুট তৈরির (ভিডিও)

জাহিদ রহমান
|  ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:০৫ | আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৯:৫৬
রাজধানীজুড়েই ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে, নিম্নমানের রুটি-বিস্কুট-কেক জাতীয় খাবার তৈরির ছোট-বড় কারখানা। অস্বাস্থ্যকর ও নোংরা পরিবেশে তৈরি এসব কারখানার বেশিরভাগেরই নেই অনুমোদন। তাই অস্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে গ্যাস্ট্রিক-আলসারসহ নানা রোগে ভুগছেন ক্রেতারা। অনেকে আবার আছেন, স্বাস্থ্যঝুঁকিতে।

রাজধানীর সোয়ারিঘাটের অলিতে-গলিতে গড়ে উঠেছে বেকারি জাতীয় এসব কারখানার বেশির ভাগ। অথচ বাইরে থেকে বোঝার উপায় নেই।

নোংরা পরিবেশে এমন খাবার তৈরি দেখে, যে কেউ আঁতকে উঠবেন। ময়লা- ধুলাবালিতে তৈরি এসব খাবার বিক্রি হয়, সারা দেশে। নোংরা ডালডা দিয়ে তৈরি হচ্ছে এসব খাবার।

বেকারির কর্মচারি জসিম বলেন, আমরা এখানে কাজ করি। আমরা যতটা সম্ভব পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশে কাজ করার চেষ্টা করছি।

কারখানাগুলোতে নেই মানদণ্ড নির্ণয়ের প্রক্রিয়া বা কাগজপত্র। শরীরের ঘামে মাখো মাখো অবস্থা, এই ব্রেড কারখানায়। টেলিভিশন ক্যামেরা দেখে শুরু হয় নোংরা পরিবেশ ঠিক করার তোড়জোড়।

বেকারিতে কর্মরত শ্রমিকদের বেকারি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা নিয়ে জিজ্ঞেস করা হলে তারা বলেন, এখানে প্রতিদিন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা করা হয়। আবার এ রকম হয়। তারপর পরিষ্কার করি। ক্যামেরা দেখে তাদের তোড়জোড় আরও বেড়ে যায়।

পাশের আরেক কারখানায় পোড়া, কালচে তেল ও ময়লাযুক্ত চিনির সিরায় তৈরি হচ্ছে সিঙ্গারাসহ নানা মুখোরোচক খাবার।

একই অবস্থা, মোহাম্মদপুরে গড়ে ওঠা, কারখানাগুলোতেও। পোড়া তেলে বারবার ভাজার কথা স্বীকারও করলেন কারখানা সংশ্লিষ্টরা।

বেকারিতে কর্মরত শ্রমিক  হাসান জাকির বলেন, প্রতিদিন এখানে নতুন করে তেল দেয়া হয়। পুরানো তেল ব্যবহার করা হয় না।

চিকিৎসকরা জানালেন, নিম্নমানের তৈরি খাবার মানুষের জীবনকেই হুমকিতে ফেলে দিতে পারে।

মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. প্রণব চৌধুরী জানান, ভেজাল খাবার আমাদের দেহে ক্যান্সারের মতো ভয়াবহ রোগ সৃষ্টি করতে পারে। এছাড়াও আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে।

তাই স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়িয়ে সুস্থ জীবন-যাপনের জন্য এসব খাবার যতোটা সম্ভব এড়ানোর পরামর্শ দিলেন তারা।

 

আরও পড়ুন :

আরসি/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়