logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭

মুক্তির দিনে রেকর্ড গড়লো সুশান্ত অভিনীত শেষ চলচ্চিত্র  

বিনোদন ডেস্ক, আরটিভি নিউজ
|  ২৫ জুলাই ২০২০, ১০:৩৮ | আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২০, ১০:৫০
The last film starring Sushant set a record on the day of release
চলচ্চিত্র একটি দৃশ্য।
বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত পৃথিবীতে নাই। আর কোনোদিন কোনো চলচ্চিত্রে অভিনয় করবেন না তিনি। সুশান্ত অভিনীত সব চলচ্চিত্র দর্শকরা দেখলেও দেখা হয়নি 'দিল বেচারা' ছবিটি। এটাই তার শেষ চলচ্চিত্র। তাইতো  'দিল বেচারা' নিয়ে দর্শকের আগ্রহ ছিল বেশ। গেল শুক্রবার সন্ধ্যায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ডিজনি প্লাস হটস্টারে মুক্তি পায় সুশান্ত সিং রাজপুত ও সঞ্জনা সাংঘির ছবি 'দিল বেচারা'। আর ছবিটি দেখতে অনলাইলে দর্শকদের উপস্থিতি নতুন রেকর্ড গড়েছে।

সুশান্তের সহকর্মী, প্রিয় মানুষ, বন্ধু, পরিবার এবং সর্বোপরি ফ্যানেরা সকাল থেকে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে ছিলেন 'দিল বেচারা' দেখার জন্য। IMDB এই ছবির রেটিং দিয়েছে দশে ৯.৯।
 
বলিউডের বিখ্যাত কাস্টিং ডিরেক্টর মুকেশ ছাবড়া সুশান্তকে প্রথম হিন্দি সিনেমার জন্য বেছে নিয়েছিলেন। 'কাই পো চে' ছবির কাস্টিং ডিরেক্টর ছিলেন তিনি। তাকেই বলিউডে পরিচালক হওয়ার প্রথম ধাপ পাশ করিয়ে দিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। পৃথিবীর যেমন নিয়ম আর কী, দেওয়া-নেওয়া। যদিও বিষয়টা খানিকটা আলাদা হয়ে যায়, কারণ পরিচালক মুকেশের প্রথম ছবি সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ ছবি। 

করোনার কালবেলায় এই ছবি বড় পর্দায় মুক্তি পেল না। কিন্তু এই ছবি বড় পর্দায় দেখারই। কারণ, ছবিতে বড় মনের এক মানুষকে দেখানো হয়েছে ছোট ছোট জিনিসে কীভাবে বড় করে বাঁচা যায় তার পাঠ দিতে। ১ ঘণ্টা ৪১ মিনিট ৩০ সেকেন্ড এই ছবির জন্য বড্ড কমই মনে হয়। কিন্তু শেষে রয়েছে একটা শূন্যতা। একটা মন খারাপের সুর। যেন শেষ হয়ে যাচ্ছে... এমন একটা অনুভূতি। আর সত্যি হয়ও তাই।

'দিল বেচারা' ছবির গল্পে দেখা যাবে, নায়িকার থাইরয়েড ক্যানসার। তাকে সর্বক্ষণ অক্সিজেন সিলিন্ডার বয়ে বেড়াতে হয়। রেগি মিলারের জার্সিতে তার স্বপ্নের রাজকুমারের সঙ্গে প্রথম দেখা হয় তার। আর অক্সিজেন পাইপের মাধ্যমেই ঘটে জীবনের প্রথম চুমু। কিন্তু অত্যন্ত চাপে থাকা কিজি ও তার মা অভিনয়ে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় কিছুতেই যেন বুঝতে পারেন না জীবনকে নিয়ে কীভাবে এগিয়ে যাবেন। আর সেখানেই সূর্যের রশ্মি হয়ে আলোকপাত ম্যানির। ছবিতে স্বস্তিকার স্বামীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়।

আর অদ্ভুত বিষয় হলো, যে মানুষটা জীবনের পাঠ দিতে দিতে গেলেন ছবিজুড়ে, তিনি আচমকাই নিজেকে শেষ করেছেন মাত্র ৩৪ বছর বয়সে, গলায় ফাঁস লাগিয়ে। সুশান্ত সিং রাজপুত, ছবিতে যার নাম ম্যানি। সেই কিজি অর্থাৎ সঞ্জনা সাংঘিকে শেখায় কীভাবে বাঁচতে হয়। ছবিটা দেখতে দেখতে, এই মুহূর্তগুলোতে মনের মধ্যে এসে যেতে পারে, অভিনেতা সুশান্তের অসংখ্য সাক্ষাৎকারের ছবি। যেখানে তিনি বলছেন, 'আমি বড় করে স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসি।'

তারকাদের পাশাপাশি দিল বেচারাকে নিয়ে নানা মানুষ নিজেদের অভিজ্ঞতা ও অনুভূতি শেয়ার করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সব মিলিয়ে নতুন রেকর্ড অভিনেতার জীবনে। যদিও উদযাপন করতে পারলেন না অভিনেতা! মৃত্যু তাকে হার মানালো, দেখতে দিলো না এই শুভক্ষণ।

সূত্র- এই সময় ও সংবাদ প্রতিদিন। 

জিএ  

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ২৭৪৫২৫ ১৫৭৬৩৫ ৩৬২৫
বিশ্ব ২১৩৮৩৯৭৯ ১৪১৬৬৫৯১ ৭৬৪০৫১
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিনোদন এর সর্বশেষ
  • বিনোদন এর পাঠক প্রিয়