Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

ফের গ্যাসের দাম বাড়তে পারে

গ্যাসের দাম বাড়তে পারে

দেশের বাজারে তরলকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) ভর্তুকি সামলাতে আরেক দফা গ্যাসের দাম বাড়াতে পারে সরকার। বলা হচ্ছে, আন্তর্জাতিক বাজারে এলএনজির দাম বাড়ায় দেশের বাজারে দাম সমন্বয় করা হতে পারে।

জানা গেছে, বর্তমানে দেশে প্রতিদিন ১ হাজার ৬০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উত্তোলন হচ্ছে। বাকি ৮০০ থেকে ৯০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাসের ঘাটতি এলএনজি আমদানি করে পূরণ করা হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশে এলএনজির দাম বাড়তে পারে। এলএনজি আমদানি শুরু থেকে বাড়তি দামে বিক্রি করতে। এতে জ্বালানি খাতে সরকারকে আর ভর্তুকি দিতে হবে না। যদিও এ জন্য দেশের বিদ্যুৎ ও শিল্প-কারখানায় উৎপাদন ব্যয় বাড়বে।

করোনা প্রাদুর্ভাবের পর থেকেই এলএনজির বাজার অস্থিতিশীল হয়ে ওঠে। বিশ্বে এলএনজির চাহিদা ক্রমে বাড়তে থাকায় অস্থিতিশীলতা আরও প্রকট আকার ধারণ করছে। সহসাই বাজারে স্থিতি ফিরবে না।

জ্বালানি বিভাগ সূত্র জানায়, আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত এলএনজির জন্য প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি লাগছে। অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে এই ভর্তুকির প্রয়োজন হলে শেষ ছয় মাসে আরও লাগবে। যদিও সেটার পরিমাণ নির্দিষ্ট হয়নি।

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির ঊর্ধ্বমুখী দামের কারণে আমদানিনির্ভর দেশগুলো বেশি দামে গ্যাস এবং তেল কিনছে বলেও সরকারের লোকসান বেড়েছে।

এলএনজি নিয়ে জ্বালানি বিভাগের সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, আন্তর্জাতিক বাজার থেকে বেশি দামে গ্যাস কিনে কম দামে বিক্রি করায় লোকসান হচ্ছে। এটা কমিয়ে আনতে ভর্তুকির কথা ভাবা হচ্ছে। তবে আন্তর্জাতিক বাজারে দামের ঊর্ধ্বগতি অব্যাহত থাকলে দেশের বাজারেও দাম বাড়ানোর বিষয়ে ভাবতে হতে পারে।

আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে ভারতসহ বেশকিছু দেশে জ্বালানির দাম বাড়িয়েছে বলে জানান সচিব।

এফএ/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS