Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ০২ আগস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮

স্ত্রী হত্যার দায়ের স্বামীর ফাঁসির আদেশ

স্ত্রী হত্যার দায়ের স্বামীর ফাঁসির আদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ২০১১ সালে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী হত্যার দায়ে শাহীন মিয়া নামের এক ব্যক্তিকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল-১ আদালতের বিচারক মাফরোজা পারভীন এই আদেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বেতবাড়িয়া গ্রামের হাবিবুর রহমানের মেয়ে ফেরদৌসা বেগমকে ২০০৯ সালে বিয়ে করেন পৌর এলাকার গোকর্ণঘাট গ্রামের নাসির মিয়ার ছেলে মো. শাহিন মিয়া। বিয়ের সময় দেড় ভরি স্বর্ণ, আসবাবপত্র ও নগদ টাকা নেন তিনি। এরপর শাহিন মিয়া বিদেশ যাবে বলে স্ত্রী ফেরদৌসাকে বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দিতে চাপ দেয়।

২০১১ সালে ২৩ এপ্রিল দুপুরে ফেরদৌসাকে টাকা এনে দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। এতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে মারধোর করে শাহীন মিয়া। মারধোরের পর ওইদিন সন্ধ্যার দিকে শাড়ি দিয়ে ফেরদৌসাকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যার করে ঘরের তীরে ঝুলিয়ে প্রচার চালানো হয়, ফেরদৌসা আত্মহত্যা করেছে।

এই ঘটনায় শাহীন মিয়াকে প্রধান আসামি করে মোট চার জনের নামে হত্যা মামলা করেন ফেরদৌসা বেগমের বাবা হাবিবুর রহমান। মামলার অন্যান্য আসামি ছিলেন শাহিনের মা মোছা. রোশনা বেগম, শাহিনের বাবা নাসির মিয়া ও বোন খাদিজা বেগম। মামলার পর শাহীন মিয়াকে পুলিশ গ্রেপ্তার করলে আদালতে ১৬৪ ধারা হত্যার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

পরে তিন আসামিকে অব্যাহতি দিয়ে শুধু মাত্র শাহীন মিয়াকে আসামি করে অভিযোগ পত্র দেয়া হয়। সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে আদালত শাহীন মিয়াকে স্ত্রী ফেরদৌসা বেগমকে হত্যার দায়ে ফাঁসির আদেশ দেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মফিজুর রহমান বাবুল রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করলেও বিবাদী পক্ষের আইনজীবী ওসমান গণি জানান রায়ে তারা সন্তুষ্ট নন। উচ্চ আদালতে আপিল করবেন তারা।

এসএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS