logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে সিলেটে বন্যার আশঙ্কা

সিলেট প্রতিনিধি
|  ২৯ জুন ২০১৯, ১৬:৪২ | আপডেট : ২৯ জুন ২০১৯, ১৭:২৬
বন্যা, বৃষ্টিপাত
ছবি: সংগৃহিত
টানা দুদিনের বৃষ্টিপাত ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সিলেটের সুরমা, কুশিয়ারা, লোভা ও সারী নদীতে বেড়েই চলছে পানি।

এরইমধ্যে কানাইঘাটে সুরমা নদীর পানি ও জৈন্তাপুরের সারি নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছিল। অন্যান্য নদীর পানিও বিপদসীমা ছুঁইছুঁই। বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকলে সিলেটে বন্যা দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা ছিল পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) কর্মকর্তাদের।

 তবে আজ সকাল থেকে কমতে শুরু করেছে সুরমা ও কুশিয়ারা নদীর পানি। পাউবো সিলেট অফিস সূত্র জানা যায়, টানা বর্ষণ ও ভারতের পাহাড়ি ঢলে গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে সিলেটের সুরমা, কুশিয়ারা, লোভ ও সারী নদীর পানি বৃদ্ধি পেতে শুরু করে।

সকাল নয়টায় সিলেটের কানাইঘাটে সুরমা নদীর পানি ছিল ১২.৮১ মিটার। অর্থাৎ সুরমা নদীর পানি কানাইঘাটে বিপদসীমার ৫৬ সে.মি ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে আজ কানাইঘাটে সুরমা নদীর পানি ১২.৬০ মিটার। এদিকে সিলেটে গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে ১১৬ মিলিমিটার। একইভাবে কুশিয়ারা নদীর পানি সিলেটের জকিগঞ্জের আমলসীদে বিদপসীমার ওপরের দিকে চলে গেলেও আজ তা কমে এসে দাঁড়িয়েছে ১৩.৯৭ মিটারে।  লোভা নদীতে গতকাল ছিল ১৪.৪৬ মিটার পানি আজ তা কমে এসে দাঁড়িয়েছে ১৩.৮০ মিটারে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী মুহম্মদ শহীদুজ্জামান সরকার আরটিভি অনলাইনকে জানান, অব্যাহত বৃষ্টিপাত ও ভারতের পাহাড়ি এলাকা থেকে নেমে আসা ঢলে সিলেটের সবকটি নদীর পানি গতকাল বৃদ্ধি পেয়েছিল। কানাইঘাটে সুরমা নদীর পানি ও জৈন্তাপুরে সারি নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছিল। তবে আজ সিলেটের সব নদীতে পানি কমতে শুরু করেছে। ভারতের উজানের দিকে বৃষ্টি হলে পানি বাড়তে পারে। বর্তমানে সিলেট বিভাগ ঝুঁকিমুক্ত।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়