Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২০ অক্টোবর ২০২১, ২২:১৫
আপডেট : ২০ অক্টোবর ২০২১, ২২:৪২

আত্মহত্যা করলো জগন্নাথের আরও এক শিক্ষার্থী, তিন মাসে চার জন

 আত্মহত্যা করলো জগন্নাথের আরও এক শিক্ষার্থী, তিন মাসে চার জন

ব্যারিস্টার হতে চেয়েছিল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী স্বর্ণা। কিন্তু তার সেই স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে গেল। বুধবার (২০ অক্টোবর)সকালে বাড়ির কাজের বুয়া জানায়, ছাদের সিলিংয়ের হুকের সাথে ঝুলছে স্বর্ণার মৃত দেহ। ভেঙে চুরমার হয়ে গেল স্বর্ণার ব্যারিস্টার হওয়ার স্বপ্ন। সাতক্ষীরা শহরের পলাশপোল মধুমোল্লারডাঙ্গীর নিজ বাড়িতে আত্মহত্যা করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী স্বর্ণা। কিন্তু আত্মহত্যার কারণ এখনও অজানা রয়ে গেল।

তার গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার পলাশপোল মধুমাল্লার ডাঙ্গী গ্রামে।তার পিতা ভূমি অফিসার আব্দুস সেলিম।

এলাকাবাসী জানায়, সে ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। বৃহস্পতিবার একটি পরীক্ষার জন্য বাবার সাথে তার ঢাকায় যাবার কথা ছিল। তার আগেই সব শেষ হয়ে গেল। রোববারের সেই পরীক্ষায় বসা হলো না তার।

স্বর্ণার বাবা নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার ভূমি অফিসার আব্দুস সেলিম জানান, আমি ছিলাম কর্মস্থলে। মঙ্গলবার রাতে পড়া শেষ করে স্বর্ণা তার মায়ের সাথে ঘুমিয়ে ছিল। ভোর ৫টা কিংবা সাড়ে ৫টায় মায়ের কাছ থেকে উঠে নিজের ঘরে যায় সে । সকাল ১০টার দিকে কাজের মেয়ে ঝাড়ু দিতে স্বর্ণার ঘরে ঢুকেই দেখতে পায় তার মরদেহ। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তার স্বর্ণাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার উপপরিদর্শক মোঃ শরিফুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে আমরা হাসপাতাল থেকে লাশ গ্রহণ করি। ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ বাবা মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তিনি বলেন, তার গলায় ফাঁসির দাগ ছিল। প্রাথমিকভাবে আমি এটাকে আত্মহত্যা বলে মনে করছি। পরিবারের দাবিও তাই। এ নিয়ে আরও তদন্ত হবে। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামাল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমাদের একজন শিক্ষার্থীর এভাবে মারা যাওয়া খুবই দুঃখজনক। কেউ এভাবে মারা যাক, আমরা তা কখনোই চাই না। এ বিষয়ে আমরা খুবই মর্মাহত।’

এ নিয়ে চলতি বছরের আগস্ট থেকে চারজন আত্মহত্যা করেছে বলে জানা যায়।

এরআগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র অমিতোষ হালদারের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। গত ৩০ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জে বাড়ির পাশে গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনিও আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

১৩ সেপ্টেম্বর ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অষ্টম ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী চন্দন পার্সি আত্মহত্যা করেন। বাড্ডার একটি ছয়তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়লে ঘটনাস্থলেই মারা যান ওই শিক্ষার্থী।

২৩ আগস্ট উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টরের একটি কোচিং সেন্টারের কক্ষ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মিজবাহ উল আজিমের মরদেহ।

এমএন

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS