smc
logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭

বিড়িতে বৈষম্যমূলক মূল্যস্তর বৃদ্ধির প্রতিবাদে রংপুরে মানববন্ধন (ভিডিও)

  আরটিভি নিউজ ডেস্ক

|  ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:৫৭ | আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:২৯
Human chain in Rangpur to protest against the increase in discriminatory price of bidi
বিড়িতে বৈষম্যমূলক মূল্যস্তর বৃদ্ধির প্রতিবাদে রংপুরে মানববন্ধন
চলতি অর্থবছরের বাজেটে বিড়ির উপর ধার্যকৃত বৈষম্যমূলক অতিরিক্ত ৪টাকা মূল্যস্তর প্রত্যাহার, বিড়ি শ্রমিকদের সপ্তাহে ৬দিন কাজের নিশ্চয়তা, বিড়ির উপর অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহারসহ ৫ দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছে রংপুর বিড়ি শ্রমিকরা। 

সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় রংপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশন ও বৃহত্তর রংপুর বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের যৌথ উদ্যোগে মানববন্ধনে দুই সহস্রাধিক বিড়ি শ্রমিক নেতা-কর্মী অংশগ্রহণ করে। 

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বিড়ি শিল্পের সাথে লাখ লাখ শ্রমিক জড়িত। সমাজের সুবিধাবঞ্চিত অসহায় শ্রমিকরা বিড়ি কারখানায় কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। বিশেষ করে বিধবা, স্বামী পরিত্যক্তা, শারীরিক বিকলাঙ্গ ও চর এলাকার মানুষ কর্মের সুযোগ পায়। করোনা পরিস্থিতিতে বিড়ি কারখানা বন্ধ থাকায় শ্রমিকরা চরম অসহায়ত্বে দিনাতিপাত করছে। তার উপর চলতি বাজেটে বিড়ির উপর বৈষম্যমূলক মূল্যস্তর বৃদ্ধি করা হয়েছে। প্রতি প্যাকেট বিড়িতে মূল্যস্তর ৪ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। অপরদিকে নিম্নস্তরের প্রতি প্যাকেট সিগারেটের মূল্যস্তর মাত্র ২ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও মধ্যম স্তরের সিগারেটের কোনো মূল্য বৃদ্ধি পায়নি। এটা অত্যন্ত বৈষম্যমূলক ও জাতির কাছে প্রশ্নবিদ্ধ। ফলে বিড়ির বাজার বিদেশি সিগারেট কোম্পানি দখল করে নিয়েছে। দেশীয় শিল্প ধ্বংস করে বিদেশি কোম্পানি সুবিধা পাচ্ছে। বিড়ি কারখানা বন্ধ হওয়ায় শ্রমিকরা কাজের অভাবে মজুরি না পেয়ে অনাহারে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে। 

শ্রমিক নেতারা আরও বলেন, সমাজের অসহায় বিড়ি শ্রমিকদের দুর্দশা লাঘবের জন্য এবং তাদের কর্ম রক্ষার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিড়ির উপর কর কমানোর নির্দেশনা দিলেও সেটা অমান্য করে বহুজাতিক কোম্পানির আগ্রাসনে বিড়ি শিল্পের উপর মাত্রাতিরিক্ত মূল্যস্তর বৃদ্ধি করেছে। বর্তমান করোনাকালীন পরিস্থিতিতে শ্রমিকদের জন্য বিড়ির উপর অর্পিত বাজেটটি মরার উপর খাঁড়ার ঘা হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময়ে যেমন বিড়ির উপর কর ছিল না বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়েও কর না রাখার দাবি জানান তারা।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি এমকে বাঙ্গালী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, হারাগাছ বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী সভাপতি আমিন উদ্দিন বিএসসি, আমিরুল ইসলাম, হেরিক হোসেন, আবুল হাসনাত লাভলু, শামীমুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।
পি
 

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৩৯০২০৬ ৩০৫৫৯৯ ৫৬৮১
বিশ্ব ৪,০৩,৮২,৮৬২ ৩,০১,৬৯,০৫২ ১১,১৯,৭৪৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়