• ঢাকা শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

দণ্ড স্থগিত হলে দণ্ডিতরা নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে: হাইকোর্ট

আরটিভি অনলাইন রিপোর্টআরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৮:০৮ | আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০১৮, ২০:২৪
দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত ব্যক্তির সাজা ও দণ্ড স্থগিত হলে তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. রইস উদ্দিনের একক বেঞ্চ যশোর-২ আসনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও প্রাক্তন উপজেলা চেয়ারম্যান সাবিরা সুলতানার ছয় বছরের সাজা ও দণ্ড স্থগিত করে এ আদেশ দেন।

western এ আদেশের ফলে সাবিরা সুলতানার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে কোনো আইনগত বাধা থাকলো না বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট এম আমিনুল ইসলাম।

তবে এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে বলে জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

গত ১২ জুলাই সম্পদের তথ্য গোপন মামলায় সাবিরা সুলতানাকে ৬ বছরের দণ্ড দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করলে তা শুনানির জন্য গ্রহণ করে হাইকোর্ট।

আদালত পর্যবেক্ষণ দিয়ে বলেছেন, কোনো ব্যক্তির দণ্ড আপিল বিভাগে চূড়ান্তভাবে নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তার সাজা বা দণ্ড চূড়ান্ত বলে বিবেচিত হবে না। তবে আপিল চলাকালে তার সাজা বা দণ্ড স্থগিত হলে তিনি নির্বাচনের জন্য অযোগ্য হবেন না। বিচারিক আদালতে দণ্ডিত ব্যক্তির সাজা কিংবা দণ্ড স্থগিত করার ক্ষমতা হাইকোর্ট বিভাগের রয়েছে বলেও পর্যবেক্ষণে বলা হয়।

এসময় অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম বলেন, এ আদেশের পর থেকে যারা নির্বাচনে অংশ নিতে চান তারা হাইকোর্টে সাজা বা দণ্ড স্থগিত চেয়ে আবেদন করে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।

গেল ২৮ নভেম্বর বিচারিক আদালতে কোনো ব্যক্তি ২ বছরের অধিক সাজাপ্রাপ্ত হলে তিনি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করতে পারবেন না বলে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রাখেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। এর ফলে বিচারিক আদালতের সাজার  বিরুদ্ধে হাইকোর্টে দণ্ড স্থগিত করা হলে কিংবা আপিল চলাকালে কোনো ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। তবে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে দণ্ড স্থগিত কিংবা বাতিল হলে ওই ব্যক্তির নির্বাচনে অংশ নিতে কোনো বাধা থাকবে না।

আরও পড়ুন :

এমসি/এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়