• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

রাশিয়ায় সবার আগে ইরান

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ০৭ জুন ২০১৮, ০৮:৪২ | আপডেট : ০৭ জুন ২০১৮, ০৮:৫০
বিশ্বকাপ শুরু হতে বাকি এক সপ্তাহ। কিন্তু এর আগেই পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ২০১৮ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশে সবার আগে পা রাখলো ইরান ফুটবল দল। মঙ্গলবার মস্কোর স্থানীয় সময় ৮টা ২৬ মিনিটে নুকোভো এয়ারপোর্টে পৌঁছায় তারা। বিমানবন্দরে দলটিকে বরণ করে নেয় বিশ্বকাপের স্থানীয় আয়োজক কমিটির কর্মকর্তারা।

বাছাইপর্বে এশিয়া থেকে সবার আগে রাশিয়া বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে ইরান। ১৯৭৮, ১৯৯৮, ২০০৬ ও ২০১৪ সালে বিশ্বকাপ খেলা দেশটি প্রথমবারের মতো টানা দ্বিতীয় বিশ্বকাপে ওঠে। 

বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ১২টি ম্যাচ খেলেছে ইরান। ১টি জয়, ৩টি ড্র ও ৮টি ম্যাচে ড্র করে তারা। ১৯৯৮ সালের আসরে বিশ্বকাপের মঞ্চে একমাত্র জয়টি পায় ইরান। যুক্তরাষ্ট্রকে ২-১ গোলে হারিয়েছিলো তারা।

এয়ারপোর্টে নেমে ইরানের পর্তুগিজ কোচ কার্লস কুইরোজ বলেন, ইরানের স্বপ্ন সত্যি হয়ে আসছে। কঠোর পরিশ্রম এবং নিজেদের উৎসর্গ করার মাধ্যমে আমাদের সেই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে হবে। পৃথিবীর সেরা দলগুলোর সঙ্গে খেলে এই বিশ্বকাপের অন্যতম অংশ হতেই এসেছে ইরান। আমরা এখানে এসেছি যতটা সম্ভব আমাদের স্বপ্নকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় সে লক্ষ্যে। এই বিশ্বকাপকেই আমাদের সেরা বিশ্বকাপ করার জন্য চেষ্টার কোন ত্রুটি থাকবে না। খেলোয়াড়, সমর্থক এবং রাশিয়ার সব মানুষকে ধন্যবাদ জানাই বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য। শুভকামনা বিশ্বকাপের সকল দলের জন্য।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : শারাপোভাকে পাত্তাই দিলেন না মুগুরুসা
--------------------------------------------------------

কুইরোজ লম্বা সময় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের সহকারী ছিলেন। এছাড়া পর্তুগাল ও রিয়াল মাদ্রিদেরও কোচ ছিলেন তিনি।

ইরানের দলটি ক্যাম্প হিসেবে ব্যবহার করবে রাশিয়ার লুকোমটিভ মস্কোর ট্রেনিং সেন্টারটি। ৮ জুন লিথুয়ানিয়ার বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে দলটি। আগামী ১৫ই জুন মরক্কোর বিপক্ষে বিশ্বকাপে ইরান তাদের বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করবে। বি গ্রুপে ইরানের সঙ্গে বাকি দুই দল স্পেন ও পর্তুগাল। এর আগে চারবার বিশ্বকাপ খেললেও গ্রুপ পর্ব উৎরাতে পারেনি ইরান।

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে টিকিট পেতে এশিয়া অঞ্চল থেকে প্রথম দল হিসেবে যোগ্যতা অর্জন করেছিল ইরান। বাছাই পর্বে ১০ খেলায় ৬ জয়, ৪ ড্র’তে সর্বোচ্চ ২২ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় ইরান।

আরও পড়ুন :

এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়