logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

খারাপ সময়ে আগুয়েরোর সাহায্য পেয়েছি: জেসুস

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০১ জুলাই ২০১৯, ১২:৫৭
কোপা আমেরিকা-২০১৯
সার্জিও আগুয়েরো ও গ্যাব্রিয়েল জেসুস
২০১৭ সালে পালমেইরাস থেকে ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দিয়ে রাতারাতি তারকা বনে যান ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল জেসুস। প্রথম মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় ৪২ ম্যাচে ১৭ গোল করেন। পাঁচটি গোলও করিয়েছেন। যদিও ২০১৮/১৯ মৌসুমের শুরুটা ভালো যাচ্ছিল না জেসুসের। যদিও মৌসুমের শেষ পর্যন্ত ৪৭ ম্যাচে ২১ গোল করে ছয়টি গোল করান ২২ বছর বয়সী এই তরুণ। আর এই সফলতার পেছনে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার তারকা সার্জিও আগুয়েরোর হাত রয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন জেসুস।

সাংবাদিক জেসুস বলেন, সব শেষ মৌসুমের প্রথম দিকে সিটির হয়ে বেশ বাজে সময় পাড় করছিলাম আমি। ফর্ম না থাকার কারণে বেশি ম্যাচও খেলতে পারছিলাম না। এসময় আমার পরিবার ও কাছের কিছু মানুষ আমাকে সাহায্য করেছিল। আমার শারীরিক প্রশিক্ষকও আমাকে সহায়তা করেছেন। 

২০১৮/১৯ মৌসুমে ম্যান সিটির প্রথম ১৬ ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটি গোল ছিল জেসুসের। যদিও শেষ পর্যন্ত জ্বলে ওঠেন তিনি।
 
ব্রাজিলিয়ান এই তারকা বলেন, চেষ্টা করছিলাম বেশি গোল করার জন্য। যদিও আমার শটগুলো ছিল দুর্বল। বেশ কয়েকটি ম্যাচ ছিল যেখানে আমি শটও নিতে পারিনি। আর এই কারণে জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছিল।

২০০৭ সালের পর প্রথমবারের মতো কোপা আমেরিকা আয়োজন করছে ব্রাজিল। স্কোয়াডের অন্যতম প্রধান সদস্য হিসেবে রয়েছেন জেসুস।

২২ বছর বয়সী এই তরুণ ম্যানচেস্টার সিটির সতীর্থ আগুয়েরো ও নিকোলাস ওতামেন্ডির বিপক্ষে বুধবার কোপার সেমি-ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছেন।

জেসুস জানালেন, নিজের খারাপ সময়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি দল আর্জেন্টিনার ফরোয়ার্ড আগুয়েরোকে কাছে পেয়েছেন। শিখেছেন তার কাছ থেকেও।

জেসুস বলেন, বর্তমানে আমি অনেক শুট করছি। পরিবর্তন এসেছে নিজের মধ্যে। সিটি আর জাতীয় দল দুটির হয়েই পরিবর্তন আনতে পেরেছি। 

সার্জিও আগুয়েরোর সঙ্গে গ্যাব্রিয়েল জেসুস

অন্যদের তুলনায় আমি আগুয়েরোর দিকে বেশি নজর রাখতাম উল্লেখ করে জেসুস বলেন, কারণ তিনি (আগুয়েরো) অনেক শুট করে থাকেন। এর এই কারণে গোল করতে সহজ হয়। আমি তার থেকে অনেক কিছু শিখেছি। তবে এখন আমরা ভিন্ন দুই দলের হয়ে খেলছি।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা খেলা মানে মাঠ ও মাঠের বাইরে অন্যরকম উত্তাপ। পুরো বিশ্বের নজর জেনো আটকে আছে এই দুই দলের পায়ের দিকেই। হাই-ভোল্টেজ এই ম্যাচ নিয়ে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার বলেন, দুটি দলই জায়ান্ট। ফুটবলে যাদের রয়েছে বর্ণিল ইতিহাস। আমরা যতবার ঘরের মাঠে খেলেছি ততবার বাড়তি সুবিধা পেয়েছি। তাদের বিপক্ষে বাড়তি চাপও রয়েছে।

গ্যাব্রিয়েল জেসুস ও আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার নিকোলাস ওতামেন্ডি

জাতীয় দলের হয়ে লড়াই করলেও ব্যক্তিগতভাবে তাদের মধ্যে রয়েছে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। সতীর্থ আগুয়েরোকে নিয়ে জেসুস বলেন, আমি তার বিপক্ষে কোনও বাজি ধরতে চাই না। তিনি তার নিজের দলের জন্য খেলছে আর আমি আমার। যখন আমি ফিরব (ম্যানসিটিতে) তখন তাকে এবং ওতামেন্ডিকেও বিরক্ত করব।

ওয়াই

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়