logo
  • ঢাকা শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

মেসি-রোনালদোর সান্নিধ্যে ‘ফ্লপ’ যিনি

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৯ জুন ২০১৯, ১৮:৪৯ | আপডেট : ১৯ জুন ২০১৯, ১৯:৪০
মেসি-রোনালদোর - rtv online
লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে পাউলো দিবালা
২০১৫ সালে পালের্মো থেকে যোগ দেন জুভেন্টাসে। ওই বছরই জাতীয় দলে অভিষেক হয় পাউলো দিবালার। জুভিদের হয়ে প্রথম মৌসুমে খেলতে নেমে ৪৬ ম্যাচে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় ২৩ গোল করেন এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। গোল করিয়েছেন ৯টি। পরের মৌসুমে ৪৮ ম্যাচে অংশ নিয়ে ১৯ গোল করে। গোল করতে সাহায্য করেছেন ৯ বার। ২০১৭/১৮ মৌসুমে ২৬ গোল করে আর ৭ গোল করে দলের সেরা স্কোরার হয়েছিলেন দিবালা। যদিও চলতি মৌসুমে চিত্রটা পুরাই ভিন্ন। ৪২ ম্যাচে অংশ নিয়ে মাত্র ১০ গোল। গোল করাতে সক্ষম হয়েছেন মাত্র ৬টি। ১৮/১৯ মৌসুম শুরুতেই ইতালিয়ান দলটিতে যোগ দেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক এই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড তুরিনের ক্লাবটিতে যোগ দেয়ার পরই মূল একাদশ থেকে ছিটকে জায়গা হয়েছে সাইড বেঞ্চে।

দিবালার এজেন্ট হিসেবে কাজ করতেন তার ভাই গুস্তাভো। গেল মাসেই এক বিস্ফোরক মন্তব্য করে আলোচনায় চলে আসেন তিনি। দিবালা ও রোনালদোর সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না, আর তাই তার ভাই খুব শিগগিরই দল ছেড়ে দিচ্ছেন। এমন মন্তব্য করে শিরোনাম হন গুস্তাভো। যদিও জুভেন্টাস ও দিবালার পক্ষ থেকে জানানো হয় বিষয়টি অসত্য। এমনকি গুস্তাভোকে বহিষ্কারও করেন দিবালা।

আর্জেন্টিনার হয়ে অভিষেকের পর প্রথম ও একমাত্র গোলটি পেয়েছেন তিন বছর পর। ২০১৮ সালে মেক্সিকোর বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে নিজের প্রথম গোলটি তুলে নেন জুভেন্টাস তারকা। অথচ অভিষেকের সময় লিওনেল মেসির সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছিল তরুণ এই ফরোয়ার্ডকে। ‘নতুন মেসি’ বলার কারণও ছিল। বার্সেলোনার কিংবদন্তির সঙ্গে খেলার ধরনের ব্যাপক মিল রয়েছে তার। আর এই কারণেই দলটির সবচেয়ে বড় এই তারকার সঙ্গে একই সময় একাদশে থাকাটাই বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায় দিবালার জন্য।

মেসির সঙ্গে একাদশে সুযোগও করে দেয়া হয় আর্জেন্টিনার লাগুনা লার্গায় জন্ম নেয়া এই ফরোয়ার্ডের। যদিও টিম ম্যানেজমেন্টের মেসি-দিবালা এক্সপ্রিমেন্টও কাজে আসেনি।

২০১৭ সালে দিবালা নিজেই শিকার করেছিলেন জাতীয় দলে মেসির পাশে খেলাটা অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। তিনি বলেন, আমি যা বলছি তা শুনলে অদ্ভুত মনে হবে। মেসির সঙ্গে খেলাটা একটু জটিল। 

দুইবারের বিশ্বসেরা দলটির জার্সিতে এই পর্যন্ত মাঠে নেমেছেন মাত্র ২০ ম্যাচে। তার মধ্যে সিংহভাগই ছিলেন মূল একাদশের বাইরে। অর্থাৎ বেশিরভাগ সময়ই দ্বিতীয়ার্ধে নেমেছেন দিবালা।

দুই যুগের বেশি সময় ধরে কোনও শিরোপা নেই আর্জেন্টাইনদের ঘরে। সম্প্রতি মেসির নেতৃত্বেই বিশ্বকাপ এবং পর পর দুইবার কোপা আমেরিকার ফাইনালে গিয়ে হতাশ হয়ে ফিরতে হয়ে আলবেসিলেস্তেদের। 

এবারের কোপা আমেরিকায় হার দিয়ে শুরু করেছে মেসির দল। প্রথম ম্যাচে কলম্বিয়ার বিপক্ষে ২-০তে হারতে হয়েছে ১৪ বারের কোপা চ্যাম্পিয়ন দলটির। প্রথম ম্যাচেও দ্বিতীয়ার্ধে বদলি খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নেমেছিলেন দিবালা।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৬টায় ‘বি’ গ্রুপের দ্বিতীয় ম্যাচে নামবে লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা। এই ম্যাচে মেসি-দিবালাদের প্রতিপক্ষ প্যারাগুয়ে। 

গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচের আগে ফুটবল সংশ্লিষ্ট গণমাধ্যম গোল ডট কম প্রশ্ন তুলেছে দিবালাকে নিয়ে। এক প্রতিবেদনে তারা জানিয়েছে, বিশ্ব ফুটবলের সেরাদের সেরা দুই মহাতারকা মেসি-রোনালদোর সঙ্গে একই দলের হয়ে খেলেছেন এমন ফুটবলার রয়েছে হাতে গোনা।পাঁচ করে ব্যালন ডি অ’র জয়ী এই দুই গোল মেশিনো সঙ্গে মাঠে নেমেও নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি ২৫ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড।

নিঃসন্দেহে দিবালা একজন বিশ্বমানের ফুটবলার। প্রশ্ন জেগেছে, এবার কী আর্জেন্টিনার জার্সিতে কোপা আমেরিকায় নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ পাবেন তিনি?

ওয়াই

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়