• ঢাকা সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

পরীক্ষা-নিরীক্ষা নয়, জয় চায় বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:৫০ | আপডেট : ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৪:০৫
ছবি- সংগৃহীত

কিরগিজস্তানের বিপক্ষে আরব আমিরাত পরাজিত হওয়ায় মাঠে নামার আগেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যায় বাংলাদেশের। তাই আজকের ম্যাচ পুরোপুরি নির্ভার হয়ে খেলতে নামবে কিরগিজস্তান ও বাংলাদেশ। 

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ কিরগিজস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। খেলাটি সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি, আরটিভি, নাগরিক টিভি ও রেডিও ভূমি। 

সেমি নিশ্চিত হওয়ায় এ ম্যাচটি পরিণত হয়েছে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াই হিসেবে। ড্র করলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হবে বাংলাদেশ। কিন্তু ড্র নয় জয় দিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে চায় ছোটনের শিষ্যরা। 

গ্রুপপর্বে সেরা হলে ‘এ’ গ্রুপের দ্বিতীয় সেরা দলটিকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পাবে বাংলাদেশ কিংবা কিরগিজস্তান। তাই গ্রুপসেরা হওয়াটা জরুরি। সেই বিবেচনায় জয়কেই জরুরী বলে মানছেন কোচ ছোটন।

ম্যাচটি নিয়ে বাংলাদেশ দলের কোচ বলেন, প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ একটি ম্যাচ হবে। আমরা জয়ের জন্যই মাঠে নামব। সবসময় আমরা যে ফুটবলটা খেলি সেই স্বাভাবিক ফুটবলটাই খেলতে চাই। যেহেতু তারা শারীরিকভাবে একটু শক্তিশালী তাই প্রতিপক্ষের সঙ্গে কোনোরকম শারীরিক লড়াইয়ে যেতে চাই না আমরা। দ্রুতগতির ফুটবল খেলে জয় আদায় করাই লক্ষ্য বাংলাদেশের।

লাল-সবুজের কোচ ইচ্ছা করলেই সাইডবেঞ্চের ধার যাচাই করতে পারেন এ ম্যাচে। কিন্তু তিনি এ পথে হাঁটতে রাজি নন। ছোটন বলেন, আমরা যেহেতু সেমিফাইনালে উঠেই গেছি, আমরা ভালো খেলার চেষ্টা করবো। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার চেষ্টা করবো। তাই আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষায় যেতে চাচ্ছি না। আমরা জয় চাই।

একদিনের ব্যবধানে কিরগিজস্তানকে খেলতে হচ্ছে দুটি ম্যাচ। সেখানে বাংলাদেশ বিশ্রাম পেয়েছে চারদিন। এটি বাংলাদেশের জন্য বাড়তি সুবিধা হিসেবে কাজ করবে বলে মনে করেন গোলাম রাব্বী ছোটন।

বাংলাদেশের অধিনায়ক মৌসুমি বলেন, আমরা কিরগিজস্তান ও আরব আমিরাতের ম্যাচ টিভিতে দেখেছি। কিরগিজরা ভালো টিম। তাদের দুর্বলতা-সবলতা নিয়েই স্যাররা (কোচ) আমাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। আমরা চেষ্টা করব ওই থিওরিগুলো মাথায় নিয়েই তাদের সঙ্গে ম্যাচ খেলার।

বয়সভিত্তিক ফুটবলে বাংলাদেশ ও কিরগিজস্তান ম্যাচ অবশ্য প্রথম নয়। ২০১৬ সালে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বে এই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে কিরগিজস্তানের জালে দশ গোল দিয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। ওই ম্যাচে হ্যাটট্রিক করা কৃষ্ণা, জোড়া গোল করা শামসুন্নাহার এবং একটি করে গোল করা মারিয়া-মার্জিয়া আছেন এই দলেও। কিরগিজস্তানের সেই দলের কয়েকজন মেয়েও আছে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের স্কোয়াডে। তবে সেই সুখস্মৃতিকে মাথায় আনতে চান না বাংলাদেশের কোচ। তার চোখে এই কিরগিজস্তান পরিবর্তিত, শক্তিশালী এক দল!

এএ/জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়