logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

  ২০ মে ২০২০, ১৬:৩৪
আপডেট : ২০ মে ২০২০, ১৭:৩৫

শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে এখনই ভাবছে না বিসিবি

শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে এখনই ভাবছে না বিসিবি
ছবি-যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়
তিন মাস ছুঁই ছুঁই, অলস পড়ে আছে দেশের ক্রিকেট। স্থগিত হয়ে গেছে ঘরোয়া লিগ আর বেশ কয়েকটি সিরিজ। এমন অচলাবস্থার কবে অবসান হবে সেটা কারোরই জানা নেই।

তার উপর বাংলাদেশে বেড়েই চলছে করোনা আক্রান্ত আর মৃতের সংখ্যা। পরিস্থিতি ক্রমান্বয়েই খারাপের দিকে যাচ্ছে সেটা বলাই যায়।

এমন অবস্থায় খেলাধুলা চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়া সহজ না। সেটা চাইলেও সম্ভব না। এর মাঝে শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছন দেশটির ক্রিকেট বোর্ড এসএলসি। তারা আতিথেয়তা দিতে প্রস্তুত ভারত এবং বাংলাদেশকে। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কী ভাবছে এই সফর নিয়ে?

বুধবার জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সম্মেলন কক্ষে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তার চেক প্রদান করা হয়। এ সময়ে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

এসময় শ্রীলঙ্কা সফর বিষয়ে বিসিবি প্রধান বলেন, দেখেন হোস্ট করতে চাইলেই তো হলো না। আমরা দল পাঠাতে পারব কী না, আমাদের খেলোয়াড়দের পাঠানো ঠিক হবে কী না এই মুহূর্তে। কোথায় থাকবে, কি করবে। এগুলো সহজ সিদ্ধান্ত না। একটা জায়গা এখন ভালো আছে, একমাস পরে দেখা গেল আবার হচ্ছে (করোনা) ওখানটায়। এটা তো বলা যাচ্ছে না শেষ হবে কোথায় বা কখন কি পরিস্থিতি। আমরা অন্যদের পর্যবেক্ষণ করব। আইসিসি কী করে, এসিসি কী করে। অন্য দেশগুলো কী করছে। এখন পর্যন্ত কেউ নির্দিষ্ট তারিখ দিলে বলতে পারিনি খেলা কবে হবে। আমরাই এক্ষেত্রে প্রথম হবো এটা ভাবা ঠিক না।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরুর আগে খেলোয়াড়রা নিজেকে তৈরি করার জন্য দরকার ঘরোয়া লিগে খেলার। প্রথম রাউন্ডের পর বন্ধ হয়ে গেছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগও (ডিপিএল)।

সামনে আছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। অস্ট্রেলিয়ায় এই বিশ্বকাপ সূচি অনুযায়ী হতে পারবে কী না এ নিয়েও  রয়েছে নানান গুঞ্জন। তাছাড়া বিশ্বকাপের ঠিক নেই দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নিয়ে আলোচনা হয়নি বলেও জানান পাপন।

‘না কোনও আলোচনা হয়নি। আলোচনা হবে কীভাবে। আমি তো কোনো তারিখ দিতে পারব যে জুলাইতে খেলব, আগস্টে খেলব। কিছুই ত জানি না। কাজেই ওগুলো নিয়ে আলোচনা হচ্ছে না। এখানে বিশ্বকাপ যেটা ছিল সেটাই পেছানোর কথা বলছে। এখানে দ্বিপাক্ষিক কি হবে এটা বলা অত্যন্ত কঠিন। মানে বলতে চাই আইসিসি ইভেন্টগুলো কবে হবে আমরা জানি না জানতে পারি। তাহলে ওই অনুযায়ী আবার রি-শিডিউল করতে হবে। তো একটা বিরাট ঝামেলা সামনে আছে। তবে এটা সবার জন্য তো একই। আমরা চেষ্টা করব বেশিরভাগ খেলা যা ছিল তা রাখতে পারি কিনা।’

এমআর/ওয়াই

RTV Drama
RTVPLUS