logo
  • ঢাকা শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু ২৮ জন, আক্রান্ত ১৭৬৪ জন, সুস্থ হয়েছেন ৩৬০ জন, নমুনা পরীক্ষা ৯৯৮৭টি: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

মেসির চিত্রকর্ম তৈরি করে পরিচিতি, রোনালদো-নেইমাররা এখন গ্রাহক

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৮ মার্চ ২০২০, ১৭:২২ | আপডেট : ২৮ মার্চ ২০২০, ১৭:৫৩
messi, neymar, ronaldo
ছবি-সংগৃহীত
অস্ট্রিয়ান জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান সরোভস্কির জগদ্বিখ্যাত ক্রিস্টাল দিয়ে ২০১০ সাল থেকে দৃষ্টি আকর্ষক সব ছবি তৈরি করছেন মাউরিসিও বেনিটেজ। কলম্বিয়ার নান্দনিক এই শিল্পী মিস্টার ব্লিং হিসেবে পরিচিত। নিজ শিল্পকর্ম এতটাই মনোহরভাবে উপস্থাপন করেন যে খোদ লিওনেল মেসি-ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো মতো মহাতারকারা তার ভক্ত।

২০১৩ সালে বার্সেলোনা প্রাণভোমরা মেসির সঙ্গে বেনিটেজের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি তাকে।

নিজ হাতে তৈরি বার্সার জার্সিতে আর্জেন্টিনার অধিনায়কের একটি চিত্রকর্ম উপহার দেন মিস্টার ব্লিং। ছবিটির মূল্য ৩৪ মিলিয়ন পাউন্ড। এমনটাই দাবি করছিল বিশ্ব গণমাধ্যমগুলো।

এরপর হালের ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, নেইমার থেকে শুরু করে ডিয়াগো ম্যারাডোনা, রোনালদিনহো থেকে ডেভিড বেকহ্যাম পর্যন্ত বিশ্ব ফুটবলের কিংবদন্তিরা তার তৈরি শিল্প কর্মের প্রশংসা করেছেন। শুধু তাই নয় তাকে ১৫ লাখ পাউন্ড পর্যন্ত সম্মানি দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি দ্য সানের সঙ্গে কথা বলেছেন বেনিটেজ। ইংল্যান্ডের এই পত্রিকাকে জানিয়েছেন, ফুটবলার হিসেবে ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসিকে নিয়ে প্রথম কাজটি করেছিলেন। রোনালদোর জন্য তিনটি কাজ করেছেন এই শিল্পী।

বর্তমানে সফল ব্যবসায়ী হলেও আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে ফ্রিতেই চিত্রকর্মটি দিয়েছিলেন তিনি।

‘কলম্বিয়ার মেডেলিনে এসেছিলেন মেসি। ২০১৩ সালে ব্যাটেল অব স্টার্স নামে একটি চ্যারিটি ম্যাচে অংশ নেন তিনি।’ বলছিলেন বেনিটেজ।

‘চিত্রকর্মটি তার জন্য উপহার ছিল। কারণ আমি তাকে অনেক পছন্দ করি। বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার হিসেবেই তাকে সম্মান জানাই আমি। এতে ১ লাখ ৫০ হাজার ক্রিস্টাল ব্যবহার করা হয়েছিল। যা তৈরি করতে সময় লেগেছিল ১ মাস। মেসি আমাকে এটার জন্য কোনও অর্থ দেননি। তবে সেসময় সংবাদ প্রচারে করে বলা হয়েছিল এটার দাম ৫০ মিলিয়ন ডলার। এই সংবাদের পর থেকেই ফুটবল তারকাদের নজরে পড়ি আমি।’

মজার বিষয় হচ্ছে মেসির প্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদো নিজ থেকেই মিস্টার ব্লিংয়ের গ্রাহক হয়েছেন। হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে এই শিল্পীর সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। তিনটি চিত্রকর্ম তৈরি করে মোটা অঙ্কের অর্থও পেয়েছেন পর্তুগাল দলপতির কাছ থেকে। যোগাযোগের মাধ্যম ছিল জুভেন্টাসে খেলা কলম্বিয়ান উইঙ্গার হুয়ান কুয়ার্ডাডো।

‘২০১৮ সালে হোয়াটসঅ্যাপে রোনালদো আমাকে ছবি তৈরি করতে বলেন। ছবিগুলো আমাকে পাঠিয়ে দেন তিনি। রোনালদো নিজেই আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। সত্যি বলতে আমি বিশ্বাস করতে পারছিলাম না।’

নিজের দুটি ও পরিবারের একটি ছবি তৈরি করতে বেনিটেজের সঙ্গে যোগাযোগ করেন রোনালদো।

‘জুভেন্টাসের বিপক্ষে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ওভার হেড কিকের একটি ছবি ছিল। যার উচ্চতা ছিল সাড়ে সাত ফুট। এতে প্রায় আড়াই লাখ ক্রিস্টাল ব্যবহার করেছিলাম। যতটুকু জানি পরিবারের সঙ্গে ছবিটি তার মায়ের বাসায় দেয়া হয়েছিল।’

আরেকটি মজাদার তথ্য হচ্ছে, ব্রাজিল ফুটবলের সবচেয়ে বড় পোস্টার বয় নেইমার মিস্টার ব্লিংয়ের ইনস্টাগ্রামে ঢু মারতেন।

গেল বছর ব্রাজিল থেকে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। নেইমারের সম্মানে একটি স্মারক তৈরি করতে ইচ্ছা প্রকাশ করা হয়। নেইমারের জন্য ক্রিস্টালের তৈরি একটি ফুটবল তৈরি করে আমি নিজেই সেখানে নিয়ে যাই। 

সেসময় নেইমার আমাকে জানান, ইনস্টাগ্রামে আমার চিত্রকর্ম দেখেছেন আগে।

এসময় নেইমারে কাছ থেকে আলাদা অর্ডার পেয়ে যান বেনিটেজ।

‘বর্তমানে তার পরিবারের একটি ছবি নিয়ে কাজ করছি আমি। কয়েকদিনের মধ্যে সেটি সবার সামনে প্রকাশ করা হবে। যার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি আমি।’

ওয়াই/পি

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৪৪৬০৮ ৯৩৭৫ ৬১০
বিশ্ব ৫৯০৬২০২ ২৫৭৯৮৭৭ ৩৫২০২৪
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • খেলা এর সর্বশেষ
  • খেলা এর পাঠক প্রিয়