logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

সিলেটকে ইনিংসে হারিয়ে মৌসুমের প্রথম জয় বরিশালের

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৩ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:০৪
সিলেটকে ইনিংসে হারিয়ে মৌসুমের প্রথম জয় বরিশালের
চার দিনের ম্যাচে খেলা হয়েছে কেবল তিন দিন। তাতেও মাত্র আড়াই দিনে ম্যাচ জিতে নিলো বরিশাল। রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়া টায়ার-টু'র বরিশাল বিভাগ ও সিলেট বিভাগের ম্যাচের প্রথম দিনে খেলাই হয়নি বৃষ্টির কারণে। 

টস জিতে বরিশাল সিদ্ধান্ত নেয় আগে বোলিং করার। উইকেটের সুবিধাটা প্রথম দিনে ঠিকই কাজে লাগায় বরিশালের পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি। প্রথম দিনে ৩১ ওভারের খেলায় ২ উইকেট তুলে নেন রাব্বি। পরের দিন আরও ৪ উইকেট নিয়ে একাই ধসিয়ে দেয় সিলেটকে। তাতে মাত্র ৮৬ রানে অল-আউট হয়ে যায় অলক কাপালির দল।
জবাবে ব্যাট করতে নেমে শাহারিয়ার নাফিসের ৬৩, অধিনায়ক ফজলে মাহমুদের ৭০ রানের ইনিংসে ভর করে ৮ উইকেটে ২৩১ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে দেয় বরিশাল।
দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪৫ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসেরই পুনরাবৃত্তি ঘটায় সিলেট। ব্যাটিং ব্যর্থতায় মাত্র আড়াই দিনেই এক ইনিংস ও ১৩ রানে হারতে হলো বরিশালের কাছে।
বরিশালের দুই স্পিনার তানভির ইসলাম ও মনির হোসেনের ঘূর্ণিতে দিশেহারা সিলেট মাত্র ৬৩ ওভার ৫ বলে অল-আউট হয়ে যায় ১৩২ রানে।
সিলেটের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন জাকের আলী, ৩৫ রান করেন ইমতিয়াজ হোসেন।
৪ উইকেট নেন তানভির ও ৩ উইকেট নেন মনির। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নেয়া রাব্বি এই ইনিংসে ছিলেন উইকেট শূন্য। এছাড়া ২ উইকেট নেন নুরুজ্জামান ও ১টি উইকেট নেন তৌহিদুল ইসলাম।

চার দিনের ম্যাচে খেলা হয়েছে কেবল তিন দিন। তাতেও মাত্র আড়াই দিনে ম্যাচ জিতে নিলো বরিশাল। রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়া টায়ার-টু'র বরিশাল বিভাগ ও সিলেট বিভাগের ম্যাচের প্রথম দিনে খেলাই হয়নি বৃষ্টির কারণে। 
টস জিতে বরিশাল সিদ্ধান্ত নেয় আগে বোলিং করার। উইকেটের সুবিধাটা প্রথম দিনে ঠিকই কাজে লাগায় বরিশালের পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি। প্রথম দিনে ৩১ ওভারের খেলায় ২ উইকেট তুলে নেন রাব্বি। পরের দিন আরও ৪ উইকেট নিয়ে একাই ধসিয়ে দেয় সিলেটকে। তাতে মাত্র ৮৬ রানে অল-আউট হয়ে যায় অলক কাপালির দল।
জবাবে ব্যাট করতে নেমে শাহারিয়ার নাফিসের ৬৩, অধিনায়ক ফজলে মাহমুদের ৭০ রানের ইনিংসে ভর করে ৮ উইকেটে ২৩১ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে দেয় বরিশাল।
দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪৫ রানে পিছিয়ে থেকে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসেরই পুনরাবৃত্তি ঘটায় সিলেট। ব্যাটিং ব্যর্থতায় মাত্র আড়াই দিনেই এক ইনিংস ও ১৩ রানে হারতে হলো বরিশালের কাছে।
বরিশালের দুই স্পিনার তানভির ইসলাম ও মনির হোসেনের ঘূর্ণিতে দিশেহারা সিলেট মাত্র ৬৩ ওভার ৫ বলে অল-আউট হয়ে যায় ১৩২ রানে।
সিলেটের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৫ রান করেন জাকের আলী, ৩৫ রান করেন ইমতিয়াজ হোসেন।
৪ উইকেট নেন তানভির ও ৩ উইকেট নেন মনির। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নেয়া রাব্বি এই ইনিংসে ছিলেন উইকেট শূন্য। এছাড়া ২ উইকেট নেন নুরুজ্জামান ও ১টি উইকেট নেন তৌহিদুল ইসলাম।

এমআর/

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • খেলা এর সর্বশেষ
  • খেলা এর পাঠক প্রিয়