logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

আনসারের ৫৩৬ পদক জয়ীকে সংবর্ধনা

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৭:৪৯ | আপডেট : ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৮:০৫
Bangladesh Ansar
সরাসরি অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জনকারী আর্চার রোমান সানাকে পুরস্কৃত করা হয়
বাংলাদেশের ক্রীড়াক্ষেত্রে একটি অবশ্য উচ্চারিত নাম আনসার ও ভিডিপি। ক্রীড়ার প্রতিটি ডিসিপ্লিনে সরব পদচারণা আনসার সদস্যদের। তাই সাফল্যের পাল্লাও বেশ ভারী বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় এই বাহিনীটির। ২০০৪ সালে ক্রীড়া ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ স্বাধীনতা পদকে ভূষিত হয় আনসার ও ভিডিপি। নিজের সদস্যদের সাফল্যের স্বীকৃতিও দিয়ে আসছে প্রতিবছর। 

bestelectronics
সেই ধারাবাহিকতায় জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে গেলো দেড় বছরে স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ পদকজয়ী সদস্যদের সংবর্ধনা দিলো ‘বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি ক্রীড়া দল’। মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর খিলগাঁওতে বাহিনীর সদর দপ্তরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ৫৩৬ জন সফল ক্রীড়াবিদকে দেয়া হয় এ সংবর্ধনা। 

------------------------------------------------------------------------
আরো পড়ুন : এশিয়া কাপ রিকার্ভে বাংলাদেশ ও রুমান সানার রৌপ্য জয়
------------------------------------------------------------------------

২০১৮ সালে জাতীয় পর্যায়ে ২৯টি প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ২০টিতে চ্যাম্পিয়ন, পাঁচটিতে রানার্সআপ, একটিতে তৃতীয় ও তিনটিতে চতুর্থ হয় আনসার ও ভিডিপি ক্রীড়া দল। জয় করে ১৬০টি স্বর্ণ, ৯৬টি রৌপ্য ও ৯০টি ব্রোঞ্জপদক।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় ২৫টি স্বর্ণ, ১৮টি রৌপ্য ও আটটি তাম্রসহ মোট ৪১টি পদক অর্জন করেন আনসারের ক্রীড়াবিদরা। এর মধ্য বিশ্ব আর্চারী চ্যাম্পিয়নশিপে রোমান সানার ব্রোঞ্জ পদকও রয়েছে।

৫৩৬ জন সফল ক্রীড়াবিদের হাতে মোট ৪২ লাখ ৮৭ হাজার টাকার অর্থ পুরস্কার তুলে দেন বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ কায়কোবাদ। এসময় ভাতা কোটায় থাকা খেলোয়াড়দের ধীরে ধীরে চাকুরীতে স্থায়ী করার কথা জানান আনসার মহাপরিচালক।

তৃণমূল থেকে মেধা তুলে আনতে আনসারের কার্যক্রর আরো বেগবান করার পরিকল্পনা তুলে ধরে অবকাঠামো উন্নয়নে নেয়া নানা পদক্ষেপ অবহিত করেন মেজর জেনারেল কায়কোবাদ। যে কয়েকটি ডিসিপ্লিনে সফলতা আসছে না সেগুলোতে আলাদা জোর দেবার তাকিদও দেন তিনি।

সাফল্যর স্বীকৃতি পেয়ে নিজেদের অনুপ্রাণিত ভাবছেন ক্রীড়াবিদরা। বাহিনীর নিয়মিত সদস্য হয়েও খেলায় পুরো মনোযোগ দিতে পারায় কৃতজ্ঞতা জানান প্রথমবারের মতো সরাসরি অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জনকারী আর্চার রোমান সানা। সহযোগিতার এ ধারা অব্যাহত থাকবে এমন আশা জানিয়ে অলিম্পিকে দেশকে ভাল কিছু এনে দিতে চান রোমান।

আর আসছে ডিসেম্বরে এসএ গেমসে দেশকে আবার পদকের গৌরবে ভূষিত করতে চান ভারোত্তলক মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। তবে তার আগে সেপ্টম্বরে বিশ্ব চ্যাম্পয়নশিপে ভাল করে অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতদে চান আনসার সদস্য মাবিয়া। 

পুরস্কার নিচ্ছেন ভারোত্তলক মাবিয়া আক্তার

১৯৪৮ সালে আনসার বাহিনী প্রতিষ্ঠার বছরই হকি দল দিয়ে ‘বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি ক্রীড়া দল’র পদচারণা শুরু হয়। দীর্ঘ পথচলায় আজ ৪৭টি দলে রয়েছে আনসারের। ১৯৯২ থেকে ২০০২ টানা চারটি আসরে বাংলাদেশ গেমসে চ্যাম্পিয়ন হবার রেকর্ড একমাত্র আনসার ক্রীড়া দলের।

‘সুস্থ দেহে সুস্থ মন রাখতে পারে ক্রীড়াঙ্গন’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে চালিয়া আসা নিজেদের কার্যক্রম ভবিষ্যতের মাদকমুক্ত ও সুস্থ বাংলাদেশ নির্মাণে সহায়ক হবে বলে বিশ্বাস করে ‘বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি ক্রীড়া দল’।

অগ/ওয়াই

bestelectronics bestelectronics
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়