logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬

চৌদ্দ বছর পর চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০২ জুন ২০১৯, ০৮:২২ | আপডেট : ০২ জুন ২০১৯, ১০:০৭
খুব কাছে গিয়েও শূন্য হাতে ফিরতে হয়েছে। কোনোভাবেই শিরোপা যেন তাদের ধরা দিচ্ছিল না। অবশেষে চলতি মৌসুমের উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা জিতে খরা কাটালো ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল।

এর আগে সবশেষ ২০০৫ সালে চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতেছিল লিভারপুল। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে তৃতীয় সর্বোচ্চ ষষ্ঠবারের মতো এবার চ্যাম্পিয়ন হলো তারা।

ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা মাদ্রিদে হওয়া ফাইনাল ম্যাচে টটেনহাম হটস্পারকে ২-০ গোলে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলেছে। এ জয়ে গোল দুইটি করেছেন মোহামেদ সালাহ এবং ডিভক অরিগি।

প্রথম মিনিটেই পেনাল্টি পায় লিভারপুল। পেনাল্টি পেয়ে লক্ষ্যভ্রষ্ট হননি মোহাম্মদ সালাহ। মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজের ৫ম গোল করে প্রথম মিনিটেই এগিয়ে নেন দলকে।  

প্রথম মিনিটে গোল পাওয়ার পর দ্বিতীয় গোলের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে অলরেডসরা। একের পর এক আক্রমণে জর্জরিত স্পার্স ডিফেন্স। প্রথমার্ধেই বেশ কিছু পাল্টা আক্রমণ করে স্পার্স তবে ফিনিশিংয়ের অভাবে প্রথমার্ধে সমতায় ফিরতে ব্যর্থ তারা। তাই মোহাম্মদ সালাহর একমাত্র গোলে ১-০ তে লিড নিয়ে বিরতিতে যায় লিভারপুল।

বিরতি থেকে ফিরেই প্রথমার্ধের মতো পুরো মাঠে আধিপত্য বিস্তার করে লিভারপুল। আর শেষ দিকে কিছু সহজ সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ স্পার্স। উল্টো শেষ দিকে ৮৭ মিনিটে অরিগির গোলে লিড দ্বিগুণ করে লিভারপুল।

রবার্ট ফিরমিনোর বদলি হিসেবে নামে ডিভক অরিগি। জেমস মিলনারের কর্নার থেকে বল জটলায় পড়ে যায়, সেখান থেকে খালি জায়গায় বল পেয়ে অলরেডদের আনন্দে ভাসান অরিগি। 

চলতি আসরের সেমিফাইনালে জোড়া গোল করা অরিগি, ফাইনাল ম্যাচে এসে করলেন আসরে নিজের তৃতীয় গোলটি।

শেষ বাঁশি বাজার সঙ্গে সঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদ ব্যতীত অন্য কোনও ক্লাবের নাম উঠলো ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন হিসেবে। আর উল্লাসে মাতলো অলরেডস সমর্থকেরা।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়