• ঢাকা বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

স্কটল্যান্ডকে ম্যাচ ছেড়ে দেওয়া নিয়ে যা বললেন কামিন্স

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ১৪ জুন ২০২৪, ২১:০০
কামিন্স
ছবি-এএফপি

ক্রিকেটে ভারত-পাকিস্তানের মতো আরও দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী হলো অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড। চলমান টি-টোয়েন্টির বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচে জয় না পাওয়া ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়ার শঙ্কায় ছিল। তবে ওমানকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সুপার এইটের আশা বাঁচিয়ে রেখেছে ইংলিশরা।

তবে অস্ট্রেলিয়া ও স্কটল্যান্ড ম্যাচে দিকে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে জস বাটলারদের। এর আগে অজি পেসার জশ হ্যাজলউড বলেছিলেন, ইংল্যান্ডের মতো দলকে বাদ করতে পারলে ভালোই হবে। এমন মন্তব্যের পর থেকেই আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়ে যায়। অনেকে প্রশ্ন তোলেন ইংল্যান্ডকে বাদ দিয়ে ম্যাচ ছেড়ে দিতে পারে অজিরা।

কিন্তু প্যাট কামিন্স সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন স্কটিশদের বিপক্ষে জয়ের বিকল্প কিছু ভাবছে না অস্ট্রেলিয়া। সেন্ট লুসিয়ায় এক সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে অস্ট্রেলিয়ার এই পেসার বলেছেন, আমার মনে করি, যখন আপনি মাঠে যাবেন, প্রতিবারই সেরাটা দেওয়ার চেষ্টাটা করবেন। যদি তা না করেন, তাহলে এটি ক্রিকেটের চেতনার পরিপন্থী।

হ্যাজলউডের ইংল্যান্ডকে নিয়ে মন্তব্য মজা করে করা হয়েছিল বলে জানান কামিন্স। ‘আমি জশের সঙ্গে কথা বলেছি, ও আসলে সেদিন মজা করেছে। আমার মনে হয় ওর কথাটা কিছুটা ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে।’

ওমানকে রেকর্ড ১০১ বল হাতে রেখে হারিয়ে ইংল্যান্ড রানরেটের হিসাবে স্কটল্যান্ডকে টপকে গেছে। ইংলিশদের পরের ম্যাচে নামিবিয়াকে হারানোর পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়া জয় পেলেই সুপার এইটে যাবে ইংল্যান্ড।

স্কটল্যান্ড ম্যাচ নিয়ে কামিন্স বলেন, আমরা মাঠে যাব এবং খুব ভালো টুর্নামেন্ট কাটানো স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ভালো খেলার চেষ্টা করবো। ম্যাচটা কঠিন হবে। নেট রান রেট নিয়ে আমাদের হাসি-ঠাট্টা হয়েছে।

‘কিন্তু এটা আমাদের খেলার ধরনে কোনোরকমের পরিবর্তন আনবে না। আমি কখনোই ম্যাচ জেতার মানসিকতা ছাড়া মাঠে যায় না। আক্রমণাত্মক থাকতে হবে, যেমন ছেলেরা আছে এখন পর্যন্ত।’


মন্তব্য করুন

  • খেলা এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
অবসরে ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী তারকা
বিয়ে করলেন ক্রিকেটার রিশাদ, পাত্রী কে?
ঘুমকাণ্ডে সংবাদ প্রকাশ, আইনি লড়াইয়ে তাসকিন
বিশ্বকাপে ব্রাজিলের সাফল্য দেখার জন্য প্রস্তুত থাকতে বললেন দরিভাল