Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

বিপিএল

সাকিবদের হারিয়ে প্রথম জয় ঢাকার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) অষ্টম আসরের শুরুটা মোটেই ভালো হয়নি মিনিস্টার ঢাকার। তারকাবহুল দল গড়েও নিজেদের দুই ম্যাচ হেরে যায় মাহমুদউল্লাহরা। অবশেষে জয়ে ফিরল ফরচুন বরিশালকে হারিয়ে।

সোমবার দিনের প্রথম ম্যাচে ১৩০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২ ওভার ৪ বল হাতে রেখেই ৪ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে মিনিস্টার ঢাকা।

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ঢাকার ওপেনার তামিম ইকবাল সাজঘরে ফেরেন প্রথম ওভারেই। শফিকুল ইসলামের বল বুঝে উঠতে পারার আগেই বোল্ড হতে হলো গত দুই ম্যাচে ফিফটি পাওয়া তামিমকে।

এরপর নাঈম শেখকে দ্বিতীয় ওভারে ফেরান আলজারি জোসেফ। মোহাম্মদ শাহজাদাও এদিন বোকা বনে যান শফিকুলের বলে। বোল্ড হয়ে ফেরেন সাজঘরে।

জহুরুল ইসলাম অমিকেও রানের খাতা খোলার আগেই ফিরিয়ে দেন ক্যারিবীয় পেসার আলজারি জোসেফ। এরপরই দলের হাল ধরেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও শুভাগত হোম। দুজনে মিলে ৬৯ রান যোগ করার পর জুটি ভাঙে ২৯ (২৫) রান করা শুভাগতর বিদায়ে।

বাকি কাজটা সারেন মাহমুদউল্লাহ ও আন্দ্রে রাসেল। প্রথম দুই ম্যাচে জ্বলে উঠতে না পারা রাসেল যেন আজকের জন্যই অপেক্ষা করছিলেন। দুজনের জুটি থেকে আসে ২৫ বলে ৫০ রান। মাহমুদউল্লাহ বিদায় নেন দলের যখন জিততে ১ রান দরকার। অধিনায়কের ব্যাটে আসে ৪৭ বলে ৪৭ রান। রাসেল খেলেন ১৫ বলে ৩ চার ও ২ ছয়ে ৩১ রান।

বরিশালের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন শফিকুল ইসলাম ও আলজারি জোসেফ। ১টি করে নেন সাকিব আল হাসান ও ডোয়াইন ব্রাভো।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ফরচুন বরিশাল সংগ্রহ করে ৮ উইকেটে ১২৯ রান। ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত ৫ রান করে ফেরেন শুভাগত হোমের বলে নাঈম শেখের হাতে ক্যাচ দিয়ে।

এরপর আরেক ওপেনার সৈকত আলীকে ১৫ রানে ফেরান হাসান মুরাদ। তিন নম্বরে নেমে সাকিব আল হাসান রান তুলেছেন ধীরগতিতে। শূন্য রানে আউট হয়ে হতাশ করেন তৌহীদ হৃদয়।

সাকিব ১৯ বলে ২৩ রান করে ক্যাচ দেন রুবেল হোসেনের বলে। তবে গেইল শুরুতে দেখেশুনে খেললেও শেষ পর্যন্ত ৩০ বলে ৩ চার ও ২ ছয়ে করেন ৩৬ রান। ইশুরু উদানার বলে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কাছে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সাজঘরে।

দলের বিপাকে হাল ধরেন ডোয়াইন ব্রাভো। ২৬ বলে অপরাজিত ৩৩ রানের ইনিংস খেলে দলকে এনে দেন লড়াই করার পুঁজি।

ঢাকার পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন আন্দ্রে রাসেল ও ইশুরু উদানা। এক উইকেট করে নেন রুবেল হোসেন, শুভাগত হোম, হাসান মুরাদ ও মাহমুদউল্লাহ।

এম/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS