Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

বাংলাদেশ কি পারবে অভিজ্ঞতা দিয়ে লঙ্কানদের আটকাতে!

সংগৃহীত

এগারো দিন আগে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশ যখন শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হয়েছিল, তখন কি দুই দলের কেউ চিন্তা করেছিল যে মূল পর্বে আবারও লঙ্কা-বাংলা মুখোমুখি হবে? আইসিসির নিয়মের পরিবর্তন আর বাংলাদেশের স্কটল্যান্ডের কাছে হার- এই দুই সমীকরণ আবার এ দুই দলকে এক করেছে। প্রথম পর্বের গ্রুপ ‘এ’র চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা অন্যদিকে গ্রুপ ‘বি’র রানার্সআপ দল হিসেবে সুপার টুয়েলভে ওঠে আসা বাংলাদেশ। বাঘ-সিংহের লড়াইটা শুরু হবে শারজাহয় বিকেল ৪টায়। টাইগাররা ২৬ বছর পর খেলবে এই মাঠে।

দুই দলের মিল খুঁজতে গিয়ে বেশকিছু ব্যাপার চোখে পড়েছে। দুটি দলেরই রয়েছে একজন কার্যকরী অলরাউন্ডার। একদিকে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান, অন্যপাশে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা।

দুই পাশেই রয়েছে অ্যাটাকিং পেস বোলার। লঙ্কা দলের দুই পেসার লাহিরু কুমারা ও দুষ্মন্ত চামিরা দুজনই পারে প্রতি ঘণ্টায় ১৪৫ কি.মি. বল করতে। আর বাংলার পেস অ্যাটাকে রয়েছে কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। স্পিড স্টার তাসকিন আহমেদের সঙ্গে ডেথ ওভারের ইয়র্কার স্পেসালিস্ট সাইফউদ্দিন তো আছেই।

শ্রীলঙ্কার বোলিং লাইন আপ নিয়ে একটু প্রশংসা করতেই হবে। প্রথম পর্বে তারা প্রতিপক্ষকে আটকে দিয়েছে ৯৬, ১০১, ও ৪৪ রানে। লঙ্কা দলের সফল স্পিনার মাহিস থাক্সেনা; যার পারফর্ম অনেকটাই চোখে পড়েছে এবারের বিশ্ব আসরে। তবে ডানহাতি এই অফ ব্রেক বোলারের ইনজুরি নিয়ে আছে শংকা। তবে সবশেষ পাওয়া তথ্য অনুযায়ী ইনজুরি কাটিয়ে একাদশে দেখা যেতে পারে থাক্সেনাকে।

ব্যাটিং লাইনআপে বাংলাদেশ দল শ্রীলঙ্কার থেকে বেশ অনেকটা এগিয়ে। সেটা নিয়ে কোন সন্দেহই নেই। টাইগারদের ব্যাটিংয়ের মূল শক্তির জায়গা মিডল-অর্ডার। আর অভিজ্ঞতার দিক দিয়ে তো বাংলাদেশ দলের আশপাশেই নেই শ্রীলঙ্কা। একমাত্র ব্যাটার কুশল পেরেরা সর্বোচ্চ ৫৫টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ইনিংসে ব্যাট করেছে লঙ্কান জার্সিতে। সেদিক থেকে বাংলাদেশের তিন সিনিয়র ক্রিকেটার সাকিব, মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকের রয়েছে ৯০টির বেশি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলার অভিজ্ঞতা।

বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার সুপার টুয়েলভের এই ম্যাচটি অভিজ্ঞতা আর তারুণ্যের লড়াই হবে বলেই মনে করছেন ক্রিকেট সংশ্লিষ্টরা। বাংলার ক্রিকেট ভক্তরা হয়তো এখানে অভিজ্ঞতারই জয় দেখতে চাইবে। কারণ, এখানেই যে এগিয়ে বাংলাদেশ।

টিএন/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS