logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭

শামিমের ব্যাটে আইরিশদের হারালো উদীয়মান টাইগাররা

চট্টগ্রামে আয়ারল্যান্ড উল্ভস ও বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে রোববার। সিরিজের প্রথম ম্যাচ পরিত্যক্ত হয় আয়ারল্যান্ড দলের এক সদস্যের কোভিড পজিটিভ হওয়ায়।

সেই কোভিড চাপ মুক্ত হয়ে আজ দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নেমে শামিম হোসেনের ব্যাটে দারুণ জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সকালে টস জিতে আইরিশদের ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাইফ হাসান।

ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার জেমস ম্যাককলাম ও গত ম্যাচে কোভিড পজিটিভ হয়ে মাঠ ছাড়া রুহান প্রিটোরিয়াসের ব্যাটে শুরুটা দারুণ করে আইরিশরা।

ইনিংসের ২০.২ ওভার পর্যন্ত উইকেটের দেখা পায়নি উদীয়মান টাইগাররা। তৃতীয় বলের মাথায় শামিম খানের বলে উইকেট রক্ষক আকবর আলীর হাতে ক্যাচ দিয়ে দলীয় ৮৮ রানের মাথায় ৪১ রান করে বিদায় নেন ম্যাককলাম।

এরপর প্রিটোরিয়াস ও স্টিফেন ধোহেনির ব্যাটও চড়াও হয় বাংলাদেশি বোলারদের উপর। করোনা জয় করা প্রিটোরিয়াস শতকের কাছে চলে যান ধীর ব্যাটিং করে।

এদিকে ব্যাটে-বলে সমান তালে রান তুলতে থাকা ধোহেনিকে ৩৭ রানে ফেরান স্পিনার রাকিবুল হাসান। টাইগার শিবিরে স্বস্তির ফেরানো রাকিবুল প্রিটোরিয়াসকেও ৯০ রানের মাথায় ফেরান।

এরপর রানের চাকা ধীর হতে থাকে আইরিশদের। অধিনায়ক হ্যারি টেক্ট্ররের ২৯ বলে ৩১ রান ও শেন গ্যাটাকের ২৯ রানে ভর করে ৭ উইকেটে ২৬৩ রান তোলে সফরকারীরা।

বাংলাদেশ ইমার্জিংয়ের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন সুমন খান ও রাকিবুল হাসান। ১টি করে নেন মুকিদুল ইসলাম ও শফিকুল ইসলাম।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ওপেনার তানজিদ হাসানের ১৭ রান করে ফেরার কিছুটা চাপে পড়ে স্বাগতিকরা। এই চাপ অবশ্য দ্রুতই পেছনে ফেলেন অধিনায়ক সাইফ হাসান ও মাহমুদুল হাসান জয়।

সাইফ হাসান ৩৬ রান করে সাজঘরে ফিরলেও জয় তুলে নেন অর্ধশতক। ইয়াসির আলী ঘরের মাঠে ৩১ রানের ইনিংস খেলার পর জয় সাজঘরে ফেরেন ৬৬ রান করে।

এরপর তৌহিদ হৃদয় ও শামিম হোসেনের জুটিতে জয়ের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে যায় উদীয়মান টাইগাররা। তৌহিদ দলীয় ২১৪ রানের মাথায় ৩১ রান করে ফেরার পর আকবর সুমন খানকে সঙ্গে নিয়ে ৫৩ রানে অপরাজিত থেকে ৬ উইকেটের জয় তুলে নেয় উদীয়মান টাইগাররা।

আইরিশদের হয়ে ২ উইকেট নেন বেন হোয়াইট এবং ১টি করে উইকেট নেন জশ লিটল, রুহান প্রিটোরিয়াস ও শেন গ্যাটাকে।

এমআর/

RTV Drama
RTVPLUS