logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

বিগ ব্যাশের নিয়মে এসেছে নতুনত্ব

Innovation has come in the rules of Big Bash
ছবি- সংগৃহীত
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) পরেই দ্বিতীয় সেরা ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগ ধরা হয় সেটি অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ। প্রতি আসরেই থাকে নতুনত্ব। ঢেলে সাজানোর চেষ্টার কমতি থাকে না ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার।

এবারও যোগ হয়েছে বেশ কিছু নতুন নিয়ম। লিগকে আকর্ষণীয় করতে যোগ হয়েছে পাওয়ার সার্জ, এক্স-ফ্যাক্টর ও ব্যাশ বুস্ট নামের এই তিনটি নতুন নিয়ম। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এক বিবৃতিতে এই নিয়মগুলো যোগ করার ব্যপারে নিশ্চিত করেন।

প্রথমবার এমন তিনটি নিয়ম শুরুর ক্ষেত্রে বিগ ব্যাশের ক্রিকেট পরামর্শক ট্রেন্ট উডহিল বলেন, এই নিয়মগুলো আশা করি দারুণ কার্যকর হবে। ক্রিকেটের নতুনত্ব আনতে বড় ভূমিকা পালন করবে।

পাওয়ার সার্জ নিয়ম হচ্ছে ইনিংসের শুরুতে ছয় ওভারের পরিবর্তে চার ওভারের বাধ্যতামূলক পাওয়ার প্লে। এখান থেকে বাকি দুই ওভার যে কোনো সময় পাওয়ার প্লে নিতে পারবেন ব্যাটসম্যানরা। তবে সেটি ১১তম ওভার থেকে পরবর্তী যেকোনো সময়।

এক্স-ফ্যাক্টর মূলত বাতিল হয়ে যাওয়া ‘সুপার-সাব’ এর নতুন নাম এক্স-ফ্যাক্টর। এই নিয়মের মাধ্যমে প্রথম ইনিংসের ১০ ওভার শেষে দুদলই বদলি খেলোয়াড় নামাতে পারবে।

ব্যাশ বুস্ট নিয়মে জয়ী দলের জন্য আগে ছিল দুই পয়েন্ট, এখন হয়েছে চার পয়েন্ট। তবে ম্যাচ জিতলে তিন পয়েন্ট পাওয়া যাবে। বাকি এক পয়েন্ট যেকোনো দল পেতে পারে। সেটা নির্ধারণ হবে দ্বিতীয় ইনিংসের ১০ ওভার শেষে। এই সময়ে যারা ভালো খেলবে তারাই পাবে এক পয়েন্ট। আর যদি দুদলই ভালো খেলে তবে ভাগ করে দেয়া হবে ১ পয়েন্ট।

আগামী ১০ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে বিগ ব্যাশ। আপাতত হোবার্ট ও ক্যানবেরা, কুইন্সল্যান্ড ও অ্যাডিলেডে ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে। বাকি ভেন্যু এখনও ঠিক হয়নি।

এমআর/

RTVPLUS