smc
logo
  • ঢাকা বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭

আইপিএলে আগের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চান জাহানারা

|  ১৩ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৩০ | আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০২০, ১৯:৫৩
Jahanara's goal is a good game
জাহানারা আলম || ছবি- টুইটার
বাংলাদেশ জাতীয় দলের সদস্য জাহানারা আলম আবারও খেলতে যাচ্ছেন নারী আইপিএল খ্যাত ওমেন্স টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জে। এবারও সুযোগ হয়েছে গতবারের দল ভেলোসিটির হয়ে খেলার।

আগামী ২১ অক্টোবর সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্দেশে রওয়ানা করবেন বলে জানিয়েছেন টাইগ্রেস পেসার। তার আগে আরটিভি নিউজকে জানালেন কতটা উচ্ছ্বসিত তিনি।

‘আলহামদুলিল্লাহ আমি তো খুবই খুশি আবারও একই দলের হয়ে আইপিএল খেলতে যাচ্ছি। আর ক্যারিয়ারের জন্য অবশ্যই এটা বড় ইমপ্যাক্ট হবে কারণ আইপিএল টাইপের প্লাটফর্মে সাধারণত সবার খেলার সুযোগ হয় না, এই সুযোগটা আমি আবারও পেয়েছি আর গতবারের অভিজ্ঞতা যেটা ছিল সেটাকে কাজে লাগিয়ে এবার চেষ্টা করব যেন আরও ভালো খেলতে পারি, দলকে ভালো পারফরমেন্স দিতে পারি।’

নারী আইপিএলের গেল আসরে ভেলোসিটির হয়ে প্রথম ম্যাচে ৪ ওভারে ৩৪ রান দিয়েও ছিলেন উইকেট-শূন্য। তবে ফাইনালে সুযোগ পেয়ে জ্বলে উঠেন ঠিকই। দলকে শিরোপা জেতাতে না পারলেও ৪ ওভারে মাত্র ২১ রান দিয়ে নিয়েছিলেন ২ উইকেট। 

এবারও নির্দিষ্ট কোনও লক্ষ্য নিয়ে যাচ্ছেন না জাহানারা। দলের প্রয়োজনে নিজের সেরাটা দিতে চান বলে জানিয়েছেন এই তারকা।

‘নির্দিষ্ট কোনও লক্ষ্য নেই আসলে, যেটা আমি সবসময় চিন্তা করি ওই একই প্ল্যানে এগোবো যে, ভালো পারফরমেন্স করবো দলের জন্য। যেমন গতবারের ফাইনালে যদি আরেকটু ভালো খেলতাম, চতুর্থ ওভারটা যদি আরেকটু ভালো করতাম, যদি একটা ব্রেক থ্রু এনে দিতে পারতাম তাহলে হয়তো আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে পারতাম। ওইরকম একটা চিন্তা মাথায় আসে, কীভাবে আরও ভালো কিছু করা যায়, পরিস্থিতির উপর ভিত্তি করে, পারফরম্যান্স করে দলকে যতটা এগিয়ে দেয়া যায় ওই লক্ষ্য তো আছেই। এমনি নির্দিষ্ট কোন লক্ষ্য নেই যে এটা করবো, ওটা করবো, পারফরমেন্স করার লক্ষ্য আসলে।’

গতবার জাহানারা একা খেললেও এবার সফর সঙ্গী হচ্ছেন নারী টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন। তার দল সুপারনোভা। দুজন দুদলের হয়ে খেলতে হবে বলে আফসোস কী না এমন প্রশ্নে জাহানারা জানান, ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে এমনটা হওয়াই স্বাভাবিক।

‘আসলে আমি অন্যভাবে চিন্তা করছি না। এটা একটা ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ, এমনই হবে। একই দলে খেলতে হবে এটা প্রয়োজনীয় না। যেমন শ্রীলঙ্কান দুই ক্রিকেটার কিন্তু একই টিমে খেলছে আবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৩ জন খেলোয়াড় কিন্তু ভাগ হয়ে তিনটা দলে খেলছে। আবার আমরা যখন প্রিমিয়ার লিগ খেলি আমরা জাতীয় দলের ১১ জন বা ১৫ জন কিন্তু একই টিমে খেলি না। এটা একটা টুর্নামেন্ট এবং এটা একটা ক্রিকেটের অংশ বলতে হবে। যে প্লাটফর্মে খেলতে যাচ্ছি এটা আমরা ওভাবেই দেখব পেশাগত ভাবে।’

এমআর/ওয়াই

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৩৯০২০৬ ৩০৫৫৯৯ ৫৬৮১
বিশ্ব ৪,০৩,৮২,৮৬২ ৩,০১,৬৯,০৫২ ১১,১৯,৭৪৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • খেলা এর সর্বশেষ
  • খেলা এর পাঠক প্রিয়