logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

রাজু ভাস্কর্যে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের অবস্থান, বিক্ষোভ

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৭ মে ২০১৯, ০৮:৩৮ | আপডেট : ২৭ মে ২০১৯, ১৩:৩১
আবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেছে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত ও প্রত্যাশিত পদ না পাওয়া সদস্যরা। এ সময় ‘বিতর্কিত’দের বাদ দিয়ে কমিটি পুনর্গঠন না করা পর্যন্ত তারা সেখানে অবস্থান করবেন বলে ঘোষণা দেন।

bestelectronics
বিক্ষোভে অংশ নেয়া কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, রোববার দিনগত রাত একটা থেকে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অবস্থান নিয়েছেন ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত অংশের সদস্যরা৷

তাদের দাবি, যে কমিটিতে ‘বিতর্কিত’রা রয়েছেন, সেই কমিটি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিলে তাতে বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা করা হবে।

এর আগে রোববার রাতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদকের গোলাম রাব্বানির স্বাক্ষর করা একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনের নবগঠিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির সবাইকে নিয়ে সোমবার সকালে ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হবে বলে জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তির প্রতিক্রিয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির সামনে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে ছাত্রলীগের নতুন কমিটিতে পদবঞ্চিত ও প্রত্যাশিত পদ না পাওয়া অংশটি।

রোববার রাতে পদবঞ্চিতরা রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে অবস্থান নিয়ে নিজেদের দাবির পক্ষে স্লোগান দেন৷ সে সময় তারা- ‘বিতর্কিতদের কমিটি, মানি না, মানবো না’, ‘অছাত্রদের কমিটি, মানি না, মানবো না’, ‘অবৈধ কমিটি, মানি না, মানবো না’, ‘বিবাহিতের ঠিকানা, ছাত্রলীগে হবে না’, ‘প্রহসনের কমিটি, মানি না, মানবো না’, ‘মাদকসেবীর ঠিকানা, ছাত্রলীগে হবে না’, ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন।

ছাত্রলীগের আংশিক কমিটি প্রকাশের প্রায় ১০ মাস পর গত ১৩মে ঘোষণা করা হয় সংগঠনের ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি। ওইদিন সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে পদবঞ্চিত ও প্রত্যাশিত পদ না পাওয়া ছাত্রলীগের বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা সংবাদ সম্মেলন করতে গেলে সংগঠনের বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুসারীরা তাদের ওপর হামলা চালান। এতে কয়েকজন নারী নেত্রীসহ ১০-১২ জন আহত হন। এ ঘটনা নিয়ে পদবঞ্চিতরা আন্দোলনে নামলে আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতাদের আশ্বাসে তারা আন্দোলন থেকে সরে আসেন। মধুর ক্যান্টিনের সেই ঘটনায় ২০মে রাতে ৫ জনকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ। এই ঘটনার এক সপ্তাহ পর ফের আন্দোলনে নামলো নতুন কমিটিতে পদবঞ্চিতরা।

পি

bestelectronics bestelectronics
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়