logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬

জাতীয় শোক দিবস নিয়ে 'বাজে মন্তব্য' করেছিলেন ভিপি নুর

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৪ আগস্ট ২০১৯, ১৮:০৪ | আপডেট : ১৪ আগস্ট ২০১৯, ২২:৪৬
পটুয়াখালীর গলাচিপায় ডাকসু’র ভিপি নুরুল হক নুর ছাত্রদল-ছাত্রশিবির নেতাদের সঙ্গে মোটরসাইকেল বহরে গিয়েছিলেন। পথসভায় ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস সম্পর্কে বাজে মন্তব্যও করেছিলেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে তার বহরের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বুধবার দুপুরের দিকে গলাচিপার রতনদী তালতলী ইউনিয়নের উলানিয়া বাজার এলাকায় ভিপি নুরের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এতে ভিপি নূরুল হক নূরসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরেছেন। 

উলানিয়া বাজারের ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, নুরুল হক নুর তাঁর নিজ বাড়ি চর বিশ্বাস থেকে বুধবার সকালে একটি নৌযানে নদী পারাপার হয়ে গলাচিপার বদনাতলী আসেন। সেখান থেকে ৩০-৩৫টি মোটরসাইকেল বহর নিয়ে পার্শ্ববর্তী উপজেলা দশমিনায় যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে রতনদী তালতলী ইউনিয়নের কাটাখালী বাজারে পৌঁছে সেখানে অনির্ধারিত এক পথসভায় বক্তৃতাও রাখেন। এ সময় তিনি জাতীয় শোক দিবস নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন বলে স্থানীয় অভিযোগ করেন। ঢাকার সরকারি কবি নজরুল কলেজ ছাত্রদল নেতা সাইদুর মাতব্বর, সোহরাওয়ার্দী কলেজের ছাত্রদল নেতা শুভ, গলাচিপা উপজেলা ছাত্র শিবিরের সাবেক সভাপতি তালহাদিল আমীন, মিলন আহমেদ তার গাড়ি বহরে ছিলেন বলে জানা গেছে।

গলাচিপা উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা শাহিন শাহ আরটিভি অনলাইনকে জানান, ১৫ আগস্ট কাঙ্গালীভোজ খাওয়ানোর জন্য ভারত থেকে গরু আনা হচ্ছে দাবি করে ওই পথসভায় জাতীয় শোক দিবস সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করেন নুর। এ সময় স্থানীয় জনতা তাকে ধাওয়া করলে তারা বহর নিয়ে দ্রুত ওই এলাকা থেকে সটকে পড়েন। কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি।

---------------------------------------------------------------
আরো পড়ুন: ছাত্রলীগ সভাপতির ৩০০ আমগাছ কাটল দুর্বৃত্তরা
---------------------------------------------------------------

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ভিপি নুরুল হক নুরের বড় ভাই মো. নুরুজ্জামাল। তিনি আরটিভি অনলাইনকে বলেন, নুরসহ আমরা একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দশমিনায় যাচ্ছিলাম। কিন্তু পথিমধ্যে পূর্ব উলানিয়া বাজারে পরিকল্পিতভাবে আমাদের ওপর হামলা হয়। তাদের সঙ্গে ছাত্রদল-শিবির নেতারা ছিলেন কিনা-এমন প্রশ্নের জবাব জানতে চাইলে তিনি উত্তর দেননি।

এ ব্যাপারে গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকতার মোর্শেদ জানান, ভিপি নূর মোটরসাইকেল বহর নিয়ে দশমিনায় যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও ব্যবসায়ী নেতারা মুখোমুখি হলে শোক দিবস নিয়ে বাজে মন্তব্য করার কারণ জানতে চান। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। তখন নূরসহ অন্যান্যরা পার্শ্ববর্তী একটি বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে। পরে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাসায় পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

এসজে/ এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়