Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮

ফিলিস্তিনে বর্বরতা বন্ধ না হলে ইসরায়েল প্রাণে মারা যাবে

ছবি সংগৃহীত।

ঈদের দিনেও ফিলিস্তিনের নিরপরাধ মানুষের ওপরে নারকীয় হত্যা চালিয়েছে ইসরায়েল। দেশে দেশে এই হামলার প্রতিবাদ জানানো হচ্ছে।

বাংলাদেশের ধর্ম প্রাণ মুসল্লিরাও বসে নেই। এই হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ জানিয়েছে তারা।

আজ ঈদের দিন শুক্রবার (১৪ মে) দুপুরে বায়তুল মোকাররম উত্তর গেইটে ঈদ জামাত শেষে আল বায়তুল মোকাদ্দাসে ইসরায়েলের হামলার প্রতিবাদে এক বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতারা বলেন, ফিলিস্তিনের নিরপরাধ মানুষের ওপর বর্বর ও নৃশংস আচরণ বন্ধ না করলে ইহুদি রাষ্ট্র ইসরায়েলকে এমনভাবে কোণঠাসা করা হবে যে তারা প্রাণে মারা যাবে।

দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান বলেন, আমরা জানতে চাই জাতিসংঘের কাছে ওআইসির কাছে, আপনারা এখনও কেন চুপচাপ বসে আছেন? একটি কুকুর মারা গেলে জাতিসংঘ প্রতিবাদ করে। ফিলিস্তিনের শত শত মানুষ মারা হচ্ছে। রমজান মাসে ইফতার করতে পারে না, নামাজরত অবস্থায় মানুষজনকে মারা হচ্ছে। আল আকসা মসজিদের ভেতরে ঢুকে মানুষজনকে মারা হচ্ছে। ইসরায়েল কী এমন রাষ্ট্র যে তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া যাবে না?

ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুস আহমদ বলেন, যদি ইসরায়েল এই বর্বর আচরণ বন্ধ না করে তাহলে বাংলাদেশসহ বিশ্বের যত মুসলিম রাষ্ট্র আছে সবাই এক হয়ে এমনভাবে কোণঠাসা করবে যে প্রাণ বন্ধ হয়ে মারা যাবে। আর নিঃশ্বাস নিতে পারবে না।

তিনি আরও বলেন, মসজিদে ঢুকে যখন ইসরায়েলের বর্বর পুলিশ বাহিনী ফিলিস্তিনের নাগরিকদের ওপর হামলা করলো তখন সারা বিশ্বের সঙ্গে বাংলাদেশের মুসলমানদের হৃদয়েও আঘাত লেগেছে। ইহুদি জাতি ছিল যাযাবর তারা এতোই বর্বর ছিল যে বিশ্বের কোনো দেশ তাদের জায়গা দিত না।

এম

RTV Drama
RTVPLUS