logo
  • ঢাকা রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭

লাঠি-অস্ত্র যা লাগে তা নিয়ে আমরা প্রস্তুত হব: এমপি হারুন

লাঠি-অস্ত্র যা লাগে তা নিয়ে আমরা প্রস্তুত হব: এমপি হারুন
ছবি: সংগৃহীত

আমি পার্লামেন্টে যোগদান করেছি। জাতির উদ্দেশে বলে দিতে চাই, তারেক রহমান যে মুহূর্তে বলবে, এই অবৈধ সংসদ থেকে পদত্যাগ করে বেরিয়ে আসব। যুদ্ধের জন্য আপনারা শুধু প্রস্তুত হোন। লাঠি লাগে, অস্ত্র লাগে, যা কিছু লাগে তাই নিয়ে আমরা প্রস্তুত হব। বললেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর-৩ আসনের এমপি হারুন-অর রশিদ।

আরও পড়ুনঃ জিয়াউর রহমানের ‘বীর উত্তম’ খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত

আজ মঙ্গলবার (২ মার্চ) বিকেলে রাজশাহী মহানগরীর মাদরাসা ময়দান সংলগ্ন একটি কমিউনিটি সেন্টারের পাশে বিভাগীয় সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

এমপি হারুন-অর রশিদ বলেন, আজকে আমি এই সমাবেশে যোগ দিতে আমার বাড়ি থেকে রওনা দিয়েছি। এই সমাবেশ থেকে আমার বাড়ির দূরত্ব মাত্র ৪০ কিলোমিটার। গতকাল রাজশাহীর চারদিকে বাস-ট্রাক সমস্ত কিছু বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আমি বিস্মিত হয়েছি। আজকে যখন আমি সকালে রওনা দিয়েছি, চাঁপাইনবাবগঞ্জে আমার বাড়ি থেকে বের হওয়ার পরই পুলিশ বাধা দিয়ে বলে যেতে দেওয়া যাবে না। আমি বলেছি, আমাকে গ্রেপ্তার করতে হবে, আর না হলে আমি যাবই। এরপরে গোদাগাড়িতে বাধা দিয়েছে। রাজাবাড়ীতে এসে দেখলাম শত শত মানুষ গাড়ির জন্য দাঁড়িয়ে রয়েছে।

তিনি বলেন, আজকের এই সমাবেশ হচ্ছে লুটেরাদের উৎখাত করার সমাবেশ। আজকের এই সমাবেশ মাফিয়াদের বিরুদ্ধে আমাদের সমাবেশ। আজকের এই সমাবেশ দেশে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার সমাবেশ।

এমপি হারুন বলেন, প্রথম ধাপে নির্বাচন হয়েছিল কাটাখালী পৌরসভায়। সেখানে আমাদের মেয়র প্রার্থী সিরাজুল। লজ্জা লাগে, আওয়ামী লীগের প্রার্থী পেয়েছে ১৭ হাজার ২৪০ ভোট আর বিএনপির প্রার্থী পেয়েছে মাত্র ৭৬ ভোট। এটা কি বিশ্বাসযোগ্য?

আরও পড়ুনঃ রাজপথ উত্তপ্ত হওয়ায় আগামী আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত থাকার আহ্বান টুকুর

আরেকটি পৌরসভা হচ্ছে চাটমোহর। সেখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী পেয়েছে ১৭ হাজার ২৫২ ভোট আর বিএনপির প্রার্থী ধানের শীষে পেয়েছে ৮৫ ভোট। এটা কি বিশ্বাস করা যায়? এই সরকারের অধীনে ভোট চলবে না।

তিনি বলেন, আমি রাজশাহীর মাটিতে পরিষ্কারভাবে পুলিশ ভাইদের বলে দিতে চাই- আগামী ৩০ মার্চ বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজ খুলবে। প্রস্তুত হোন। পুলিশের ছেলে যারা, যারা বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজে পড়ালেখা করে। তাদেরকে মিছিলের সামনে আমরা নেব। দেখি পুলিশের লাঠি তাদের গায়ে পড়ে কি না।

এমপি হারুন বলেন, আপনারা প্রস্তুত হোন। রাজশাহী থেকে আমরা আন্দোলনের দাবানল সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দেব।

এসএস

RTV Drama
RTVPLUS