logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ৪ মাঘ ১৪২৭

অবৈধ মোবাইল ফোন বন্ধ হচ্ছে

Illegal mobile, being, turned off
বিটিআরসি ও সিনেসিস আইটির সঙ্গে চুক্তি
নকল মোবাইল ফোন, অবৈধ আমদানি, চুরি ও রাজস্ব ক্ষতি রোধে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) সিনেসিস আইটি নামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করেছে।

আজ বুধবার (২৫ নভেম্বর) ঢাকার রমনায় বিটিআরসির কার্যালয়ে এ চুক্তি সই হয়। চুক্তি অনুযায়ী ১২০ কার্যদিবসের মধ্যে ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেনটিটি রেজিস্টার (এনইআইআর) সিস্টেম কার্যক্রম চালু করতে হবে সিনেসিসকে।

বিটিআরসির চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক বলেন, সিনেসিস দেশীয় প্রতিষ্ঠান হলেও আইন মেনে চুক্তি করা হয়েছে। দেশে অবৈধ পথে মোবাইল ফোন আসায় সরকার রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছে।

জানা গেছে, আগামী বছরের শুরুতে অবৈধ ও নকল মোবাইল ফোন বন্ধে প্রযুক্তি ব্যবহার করতে যাচ্ছে বিটিআরসি। এই প্রযুক্তি চালু হলে গ্রাহকদের হাতে থাকা অবৈধ মোবাইল ফোনে কোনো অপারেটরের সিমই চলবে না। ২০১২ সালে উদ্যোগ নেওয়ার প্রায় ৮ বছর পর এই প্রযুক্তি বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

বিটিআরসির তথ্যমতে, ২০১৮, ২০১৯ এবং ২০২০ সালের আগস্ট পর্যন্ত মোট ১১ কোটি ৮২ লাখ ২৩ হাজার ৭৬৩টি আইএমইআই নম্বর ডেটাবেইজে যুক্ত করা হয়েছে। মোবাইল ফোন আমদানিকারক, অপারেটর ও দেশে মোবাইল ফোন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে তথ্য নিয়ে এ ডেটাবেইজ তৈরি করা হয়েছে। 

২০১৮ সালের আগে যেসব মোবাইল ফোন বিক্রি হয়েছে এবং আইএমইআই নম্বর ডেটাবেইজে যুক্ত হয়নি এনইআইআর চালু হলে সেগুলোর বিষয়ে বিটিআরসির চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক বলেন, ২০১৯ সালের আগস্টের আগ পর্যন্ত যেসব মোবাইল বিক্রি হয়েছে সেগুলোর আইএমইআই নম্বর ডেটাবেইজে যুক্ত করতে মোবাইল কোম্পানিগুলোকে নির্ধারিত সময় দেওয়া হবে।

এনইআইআর ব্যবস্থা চালু করছে বিটিআরসি। এর মাধ্যমে দেশে বৈধভাবে আমদানি ও উৎপাদিত মোবাইল ফোনের তথ্যভান্ডারের সঙ্গে মোবাইল নেটওয়ার্কে চালু হওয়া ফোনের আইএমইআই (মোবাইল ফোন শনাক্তকরণ নম্বর) মিলিয়ে দেখা হবে।

সিনেসিস আইটি বলছে, চুক্তি অনুযায়ী ৯ জুন থেকে অবৈধ মোবাইল বন্ধের প্রযুক্তিগত সমাধান তৈরি করার কথা। তবে তারা আগামী মার্চের মধ্যেই করার জন্য কাজ করছে। সিনেসিসের সঙ্গে এ প্রকল্পে কাজ করবে রেডিসন টেকনোলজিস ও কম্পিউটার ওয়ার্ল্ড বিডি নামের দুই প্রতিষ্ঠান।

চুক্তি সইয়ের অনুষ্ঠানে বিটিআরসির কমিশনার মো. মহিউদ্দিন আহমেদ, তরঙ্গ ব্যবস্থাপনা বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম শহীদুল আলম, পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সাল, উপপরিচালক সঞ্জীব কুমার সিংহ, সিনেসিস আইটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোহরাব আহমেদ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS