Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা

অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা
ছবি: সংগৃহীত

দেশে বেড়েই চলেছে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা। প্রতিদিনই হচ্ছে নতুন রেকর্ড। করোনা সংক্রমণরোধে ঢাকায় ভারতের সিরাম ইন্সটিটিউট উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার দ্বিতীয় ডোজ প্রদানের কার্যক্রম আবার শুরু হয়েছে।

সোমবার (২ আগস্ট) সকাল থেকে রাজধানীর সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালসহ বিভিন্ন টিকাদান কেন্দ্রে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার মজুদ ফুরিয়ে যাওয়ায় মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের পর থেকে দ্বিতীয় ডোজের টিকাদান বন্ধ করে দেয়া হয়।

রোববার (১ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির (ইপিআই) পরিচালক ডা. শামসুল হক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, টিকা নিতে হলে এসএমএস (ক্ষুদে বার্তা) পেয়েই সবাইকেই কেন্দ্রে আসতে। তবে আগে যারা এসএমএস পেয়েও কোনো কারণে টিকা নিতে পারেননি, তাদের এখন এসএমএস দেওয়া হবে না। তারা যেকোনো সময় এসে টিকা নিতে পারবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, ইতোমধ্যে সারাদেশে ৫৮ লাখ ২০ হাজার ৩৩ জনকে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার প্রথম ডোজ, ৪২ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬ জনকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে ১৫ লাখ ২১ হাজার ৯৪৭ জন গ্রহীতা এখনও দ্বিতীয় ডোজের অপেক্ষায় আছেন। গত ২৪ জুলাই আমরা অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা পেয়েছি। ওই টিকা ইতোমধ্যে ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করা হয়েছে। অন্যান্য জেলা, উপজেলা ও ঢাকা শহরের সব কেন্দ্রে শিগগিরই অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা সরবরাহ করা হবে।

রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে অধিদপ্তরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্য সচিব মো. শামসুল হক জানান, ঢাকায় যারা অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজের টিকা পায়নি তাদেরকে সোমবার থেকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। আর ৭ আগস্ট থেকে সারাদেশে অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেওয়া শুরু হবে। প্রথম ডোজের টিকা যে কেন্দ্র থেকে দেওয়া হয়েছিল, সেই কেন্দ্র থেকে দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেওয়া হবে।

তিনি আরও জানান, দ্বিতীয় ডোজের টিকার জন্য মোবাইলে এসএমএস লাগবে না। আগের এসএমএস দেখালেই হবে। এছাড়া টিকা কার্ড সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার উদ্যোগ কোভ্যাক্সের মাধ্যমে জাপান থেকে ২৪ জুলাই অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার প্রায় আড়াই লাখ ডোজ টিকা দেশে পৌঁছায়। এরপর কয়েকধাপে আরও টিকা এসেছে এবং আরও আসবে।

উল্লেখ্য, গত ২৭ জানুয়ারি অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দিয়ে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ধারাবাহিকভাবে টিকাদান চলতে থাকে। তবে পরবর্তীতে ভারত টিকা রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দেয়ায় এপ্রিল মাসের ২৬ তারিখ থেকে প্রথম ডোজ টিকা দেয়া স্থগিত এবং মে মাসে টিকার জন্য নতুন নিবন্ধনও বন্ধ করে দেয়া হয়।

এসজে/পি

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS