• ঢাকা শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫

জবিতে উৎসবমুখর পরিবেশে সরস্বতী পূজা উদযাপিত

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা
|  ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:২২
উৎসবমুখর পরিবেশে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব সরস্বতী পূজা উদযাপন করা হচ্ছে। রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় পূজা কমিটির উদ্যোগে এ পূজার আয়োজন করা হয়।

পূজা উপলক্ষ্যে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরান ঢাকাসহ রাজধানীর বিভিন্ন জায়গা থেকে আগত মানুষদের আগমনে উৎসবে পরিণত হয় পুরো ক্যাম্পাস। বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন একাডেমিক ভবন, ভাষা শহীদ রফিক ভবনের সামনে,কলা অনুষদের মাঠ ও বিজ্ঞান অনুষদের মাঠ সব জায়গাতেই শিক্ষার্থীরা নেচে গেয়ে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি করে।

সনাতন ধর্মমতে, বিদ্যার দেবী সরস্বতীর কাছে ভক্তিসহ তার পূজা আরাধনা করলে তিনি সবাইকে বিদ্যা দান করেন।

এদিকে, পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, `অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে মিলে-মিশে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের দেশ গড়ে তুলতে হবে। সেই সঙ্গে পরস্পরের মধ্য বৈষম্যগুলো দূর করে বাংলাদেশকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে সনাতন ধর্মাবলী শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে তাই আমরা আগামীতে জাঁকজমকপূর্ণ দূর্গাপুজার আয়োজন করবো।

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়াম্যান ও পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড.অরুণকুমার গোস্বামী আরটিভি অনলাইনকে বলেন, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ। এখানে কোনো ধরনের ধর্মীয় বিদ্বেষ থাকতে পারে না। এটা এবার উৎসবমুখর পরিবেশে পূজা উদযাপনের মধ্য দিয়ে আবারও প্রমাণিত হলো। এই পূজার মাধ্যমে অমরা ছাত্রদের কাছ থেকে বিদ্যাদেবীর যে আদর্শ তাই আশা করি। যাতে তারা বিদ্যা অর্জনে দেবী স্বরস্বতীর আদর্শকে অনুসরণ করে।’

আলোচনা সভায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. প্রিয়ব্রত পাল, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. অরুণ কুমার গোস্বামী, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. দীপিকা রাণী সরকার, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্মকর্তা সমিতি ও সাংবাদিক ও ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়