logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬

পাথরের বন! (ভিডিও)

খান আলামিন, চীনের ইউনান প্রদেশের স্টোন ফরেস্ট থেকে ফিরে
|  ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৫১ | আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৯:০৮
বনের কথা বললে চোখের সামনে ভেসে ওঠে সারি সারি বড় বড় গাছ ঠায় দাঁড়িয়ে আছে মাথা উঁচু করে। বন মানে বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে বাহারি রকমের গাছ আর লতাপাতায় মোড়ানো এক সবুজ আবহ। বাংলাদেশের সুন্দরবন তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ। কিন্তু যদি বলা হয় পাথরের বন!

কিছুটা অদ্ভুতই মনে হয়। পাথরের আবার বন হয় কী করে? পৃথিবীর বুকে এমন অনেক অদ্ভুত দৃশ্যের দেখা মেলে। চীনের ইউনান প্রদেশের রাজধানী কুনমিং থেকে প্রায় ৮৫ কিলোমিটার দূরেই দেখা মেলে এমন দৃশ্যের। আকাশের নিচে মাথা উঁচু করে একের পর এক দাঁড়িয়ে আছে পাথর। পুরোটা মিলে একটা বন। পাথরের বন! সারাবিশ্ব যাকে চীনের ‘স্টোন ফরেস্ট’ নামেই চেনে।

ইউনানের সাইলন জেলায় প্রকৃতির এক অপার বিস্ময়, এক অদ্ভুত খেয়াল এই স্টোন ফরেস্ট। চারিদিকে পাথরের অভূতপূর্ব সব কারুকার্য । এই পর্বতমালাটি হিমালয় পর্বতমালারই একটি অংশ। ছোট-বড়, উঁচু-নিচু বিচিত্র পাথর দিগ্বিদিক এমনভাবে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে, যেন এক গভীর জঙ্গল। যে জঙ্গলে পাতায় ছাওয়া সবুজের পরিবর্তে বিশাল সব পাথুরে বৃক্ষ সদম্ভে দাঁড়িয়ে আছে। ২০০৭ সালে ইউনেস্কো এই শিলিন পাথুরে বনকে বিশ্ব ঐতিহ্যের কেন্দ্র বলে ঘোষণা করেছে।

ভূ-তত্ত্ববিদদের মতে, স্টোন ফরেস্টের আজকের এই অবস্থায় পৌঁছুতে সময় লেগেছিল প্রায় ২৭০ মিলিয়ন বছর। শত শত বছর ধরে সাগরের তলদেশে জমা হচ্ছিল লাইম স্টোন। প্রকৃতির বিচিত্র খেয়ালে কোনো এক সময় হয়তো এখানে বয়ে গিয়েছিল বড়সড় কোনো ভূমিকম্প অথবা রহস্যময় কোনো কারণে এই অঞ্চলে ঘটেছিল এক অভাবনীয় ভৌগোলিক পরিবর্তন। সেই পরিবর্তনের ফলে সাগরের তলদেশের পানি শুকিয়ে যেতে থাকে আর সেখান থেকে বেরিয়ে আসে লক্ষ বছরের পুরনো বৈচিত্র্যময় লাইম স্টোনের পাহাড়। স্টোন ফরেস্টের পাহাড়গুলো আজও তার বুকে ধারণ করে আছে নানাবিধ সামুদ্রিক ফসিল।

---------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : সৌদিতে কুরআন তিলাওয়াত প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর সাফল্য
---------------------------------------------------------------------

স্টোন ফরেস্টের আয়তন ঢাকা শহরের চেয়েও বড়। এর আয়তন বোঝাতে স্থানীয়রা একে সিঙ্গাপুরের সঙ্গে তুলনা করে থাকেন। এই ফরেস্টের আয়তন সাড়ে তিন’শ বর্গকিলোমিটার।

সম্প্রতি চায়না-বাংলাদেশ ইয়ুথ ক্যাম্প-২০১৯ এ অংশ নিতে বাংলাদেশের দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী চীনের ইউনান প্রদেশ ভ্রমণ করেছেন। তারই অংশ হিসেবে একটি দিন পাথরের সঙ্গে মিতালী করেছেন শিক্ষার্থীরা। স্টোন ফরেস্ট দেখে সবাই মুগ্ধ হয়েছেন, মোহিত হয়েছেন। ফরেস্টের সৌন্দর্য যতটা মুগ্ধ করেছে শিক্ষার্থীদের ততটাই এর ব্যবস্থাপনা। শিক্ষার্থীদের অভিমত, বাংলাদেশের পাহাড়ি অঞ্চলকে যদি এমন ব্যবস্থাপনার মধ্যে নিয়ে আসা যায়, তাহলে পর্যটন খাতে এক বড় ধরনের ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে।

সি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়