logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

টাওয়ার ছাড়া মানুষ কিভাবে নেটওয়ার্ক পাবে, প্রশ্ন তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রীর

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৩ মে ২০১৯, ১৪:০২ | আপডেট : ১৩ মে ২০১৯, ১৪:১১
টাওয়ার ছাড়া মৌলভীবাজারের লাউয়াছড়ায় মানুষ কিভাবে নেটওয়ার্ক পাবে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

ফেসবুকে এক পোস্টে গত ৮ মে এ প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

মন্ত্রী তার পোস্টে লিখেছেন, আমি অন্তত একটি বিষয় বুঝতে পারি না যে, ডিজিটাল যুগে বসে আমাদের ভাবনাটা এতো পেছনে কেন? লাউয়াছড়ায় টেলিটকের টাওয়ার বানানো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এই টাওয়ারে গাছপালা ও বণ্যপ্রাণীর নাকি ক্ষতি হবে। আমি বুঝি না, টাওয়ার ছাড়া লাউয়াছড়ায় মানুষ কিভাবে নেটওয়ার্ক পাবে। ওখানে যদি টাওয়ার ক্ষতিকারক হয় তবে মানুষ যেখানে বাস করে সেখানে টাওয়ার কেন? সব টাওয়ার বন্ধ করে দিলে কেমন হয়!

এদিকে, সংরক্ষিত বনাঞ্চলে টাওয়ার নির্মাণের প্রতিবাদে এবং তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের পর রোববার শ্রীমঙ্গলে মানববন্ধন করেছেন পরিবেশবাদীরা। টাওয়ার বসানোর কাজ বন্ধের দাবিতে বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিও দিয়েছেন তারা।

রোববার সকালে শ্রীমঙ্গল শহরের চৌমুহনা চত্বরে ‘লাউয়াছড়া জীববৈচিত্র্য রক্ষা আন্দোলন’ এর আয়োজনে এই মানববন্ধন হয়। এতে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারকে উদ্দেশ্য করে মানববন্ধনে তারা বলেন, লাউয়াছড়ায় মোবাইল টাওয়ার বসালে এখানকার জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে পড়বে। এই সিদ্ধান্ত বন ধ্বংসের পায়তারা বলেই মনে হচ্ছে। সংরক্ষিত বনাঞ্চলে টাওয়ার বসালে যে বন্য প্রাণীদের সমস্যা হতে পারে তা মন্ত্রীকে বুঝতে হবে। পাখির ডিমসহ বন্যপ্রাণীরা চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। আমরা মোবাইল টাওয়ার বসানোর বিপক্ষে নই। তবে সেটা যেন বনের বাইরে হয়।

মানববন্ধন শেষে শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন তারা।

এস/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়