Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮

সাম্প্রদায়িক উসকানির অভিযোগে টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা

সাম্প্রদায়িক উসকানির অভিযোগে টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা
সাম্প্রদায়িক উসকানির অভিযোগে টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা

সাম্প্রদায়িক উসকানির অভিযোগে মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ জুন) রাতে এই মামলাটি দায়ের করা হয় ভারতের উত্তর প্রদেশে। নতুন ডিজিটাল নজরদারি বিধি নিয়ে এমনিতেই কেন্দ্রের সঙ্গে টানাপোড়েন চলছিল টুইটারের। তার উপর উত্তরপ্রদেশে ঘটে যাওয়া এক প্রবীণ ব্যক্তির ঘটনাকে সাম্প্রদায়িক রূপ দেওয়ার অভিযোগও রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

ভারতের কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, ২৫ মে থেকে কার্যকর হওয়া বিধিগুলো মেনে চলেনি প্রযুক্তি প্ল্যাটফর্ম টুইটার। সরকারি বিধি লঙ্ঘন করায় মধ্যস্থতাকারী হিসেবে রক্ষাকবচ হারিয়েছে টুইটার। আইটি আইনের ৭৯ নম্বর ধারায় টুইটার আইনি রক্ষাকবচ পেত। এবার থেকে টুইটারের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির আওতায় যে কোনও ফৌজদারি মামলা করা যাবে।

ইন্টারনেটের মাধ্যমে প্রকাশিত সমস্ত পোস্ট ও ভিডিও’র উৎস এবং কেন্দ্র টুইটার, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইউটিউবের মতো সংস্থাগুলোকে নির্দেশ দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। একই সঙ্গে ভারতে প্রধান কর্মকর্তা নিয়োগ করতে বলা হয় তাদের। ওই কর্মকর্তার কাজ হবে আপত্তিকর পোস্টের উপর নজরদারি ও তা সরানো।

কেন্দ্রী সরকারের বিধি-নিষেধকে বাক-স্বাধীনতার পরিপন্থী বলে সাফ জানিয়ে দেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। টুইটার ভারতের একজন অন্তর্বর্তীকালীন কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

উত্তরপ্রদেশের পুলিশের অভিযোগ, প্রবীণ ব্যক্তির ঘটনাকে সাম্প্রদায়িক রূপ দেওয়ার জন্য টুইটার কর্তৃপক্ষই দায়ী। কিন্তু টুইটার এক বিবৃতিতে সেই অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে। টুইটারকে সতর্ক করা সত্ত্বেও ওই ঘটনার সাম্প্রদায়িক মন্তব্যগুলো সরায়নি। ওই ভিডিয়োটিকে বিকৃত বলে সতর্কবার্তাও দেয়নি, তাই তাদের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক ব্যবস্থা নেওয়াই উচিত। সেই মতো টুইটারের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক উসকানির অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে তারা। সূত্র: এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকা

এসজে/পি

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS