logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭

দুই বিসিএসে নিয়োগ পাবেন ৩৮১৪ জন

recruited, BCS, job
করোনা মহামারীর কারণে মন্ত্রণালয়, অধিদপ্তর, পরিদপ্তর থেকে শুরু করে চাকরিপ্রত্যাশীদের সর্বোচ্চ আকাক্সক্ষা বিসিএস পরীক্ষাও পিছিয়ে যায়। এবার পিছিয়ে পড়া ৪২তম বিশেষ বিসিএসে ২ হাজার চিকিৎসকের নিয়োগ প্রক্রিয়া এবং ৪৩তম সাধারণ বিসিএসের প্রজ্ঞাপন জারি করতে যাচ্ছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে শূন্যপদের চাহিদা অনুযায়ী জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় আজ সোমবার (২৩ নভেম্বর) পিএসসিতে ৪৩তম সাধারণ বিসিএসের চাহিদা পাঠানো হয়েছে। এখানে প্রশাসন ক্যাডারে ৩০০ জন, পুলিশ ক্যাডারে ১০০ জন, পররাষ্ট্র ক্যাডারে ২৫ জন, শিক্ষা ক্যাডারের জন্য ৮৪৩ জন, অডিটে ৩৫ জন, ট্যাক্সে ১৯ জন, কাস্টমসে ১৪ জন, সমবায়ে ২০ জন, ডেন্টাল সার্জন পদে ৭৫ জন এবং অন্যান্য ক্যাডারে ৩৮৩ জনকে নিয়োগের জন্য পিএসসিতে চাহিদা পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে ৪২তম বিশেষ বিসিএসে ২ হাজার চিকিৎসকের নিয়োগের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করেছে পিএসসি।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ, পদোন্নতি ও প্রেষণ (এপিডি) অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন বলেন,  ৪৩তম বিসিএসের মাধ্যমে বিভিন্ন ক্যাডারে এক হাজার ৮১৪ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। নিয়োগের চাহিদা সরকারি কর্ম কমিশনে (পিএসসি) পাঠিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানা গেছে, শিগগিরই ৪২ তম বিশেষ বিসিএস ও ৪৩তম সাধারণ বিসিএসের প্রজ্ঞাপন জারি করবে পিএসসি। এই দুই বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে ৩ হাজার ৮শ’ ১৪ জন নিয়োগ পাবেন। ইতোমধ্যে শূন্যপদের চাহিদা বিভিন্ন মন্ত্রণালয় জমা দিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে। শূন্যপদের চাহিদা অনুযায়ী ডিসেম্বরে বিসিএস পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হতে পারে। এখানে ৪৩তম সাধারণ বিসিএসে বিভিন্ন ক্যাডারে ১ হাজার ৮১৪ জন এবং ৪২তম বিশেষ বিসিএসের মাধ্যমে চিকিৎসক নেওয়া হবে ২ হাজার জন। দুটি বিসিএস মিলে ৩ হাজার ৮শ’ ১৪ জন নিয়োগ পাবেন শূন্যপদে।

পিএসসি সূত্র জানায়, বিশেষ বিসিএসে নিয়োগ দিতে হলে বিধিমালা সংশোধন করতে হয়। তারা সেই প্রক্রিয়া শেষ করেছে। বুধবার পিএসসি বিশেষ সভা আহ্বান করেছে, সেখানে ৪২তম বিশেষ বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের তারিখ চূড়ান্ত হবে। আর এর পরের সপ্তাহে ৪৩তম বিসিএসের বিষয়ে আলোচনা করবে পিএসসি।

এদিকে ৪১তম বিসিএসে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার অপেক্ষায় আছেন সাড়ে চার লাখের বেশি প্রার্থী। গত বছরের ২৭ নভেম্বর ৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি। এতে বিভিন্ন পদে ২ হাজার ১৩৫ কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়ার কথা রয়েছে। এ ছাড়া ৪০তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা নিয়েছে পিএসসি। এখন মৌখিক পরীক্ষার দিন ঘোষণার অপেক্ষায় আছেন প্রার্থীরা।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, করোনার মধ্যে ৪২তম বিশেষ বিসিএস থেকে ২ হাজার চিকিৎসক ও ৪৩তম বিসিএসে ১ হাজার ৮১৪ কর্মকর্তা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। শিগগির এসব পদের নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করবে পিএসসি।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন অতিরিক্ত সচিব নামপ্রকাশ্যে অনিচ্ছুক শর্তে বলেন, দেশে করোনা মহামারীর কারণে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে শূন্যপদে চাহিদা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হলেও এতোদিন এ বিষয়ে নজর দেওয়া হয়নি। এখন যেহেতু দীর্ঘদিন হয়ে গেল সেজন্য শূন্যপদে চাহিদা অনুযায়ী পিএসসিতে পাঠানো হয়েছে। ৪২তম বিসিএস থেকে ২ হাজার চিকিৎসক ও ৪৩তম বিসিএসে ১ হাজার ৮১৪ কর্মকর্তা নেওয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করতে পিএসসিকে বলা হয়েছে। আশা করছি খুব দ্রুতই এ নিয়োগের বিজ্ঞাপন প্রকাশিত হবে।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS