logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

এ যেন এক স্বর্গীয় প্রেম (ভিডিও)

পৃথিবীর মানুষ কত দৃষ্টান্তমূলক প্রেমের গল্প শুনেছেন তেমনি এক প্রেমের দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করলো পাকিস্তানের লাহোরের বাসিন্দা সানা ও দাউদের সম্পর্ক। একটি দূর্ঘটনা প্রেমিক দাউদের দুই হাত ও এক পা পুরোটা কেটে ফেলেন চিকিৎসকরা। বদলে যায় তার চিরচেনা পৃথিবী, শুধু বদলায় না সানা ও দাউদের প্রেমের সম্পর্ক। সামাজিক বাধা আর চাপ উপেক্ষা করে দাউদের জীবনসঙ্গী হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন সানা, এটি করা অন্য যে কারো পক্ষেই খুবই কঠিন হতো।

সানা বলেন, ‘আমার পরিবার একেবারেই মেনে নেয়নি। তারা বলেছিল দাউদের হাত নেই, পা নেই। কিন্তু আমি বলেছিলাম তাকে আমি একা ছাড়তে পারবো না। এ নিয়ে পরিবারের মধ্যে অনেক ঝগড়াও হয়েছিল। আমি বলেছিলাম দাউদের সাথেই থাকতে চাই। তারা বলেছিল, শুধু একজন মানুষের জন্য বাকি সবাইকে ত্যাগ করবে? আমি বলেছিলাম আমার কারো দরকার নেই।

এর মধ্যে সানার পরিবার তার বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু তিনি রাজি হন না। একপর্যায়ে তিনি বাড়ি ছেড়ে চলে যান খালার বাসায়। সেখানে তিনি এক মাস থাকেন। পরে দাউদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তার পরিবারের সহায়তায় বিয়ে করেন।

দাউদ সিদ্দিকী সম্প্রতি এক দুর্ঘটনার শিকার হন। বাড়িতে কাজ করার সময় তিনি প্রচণ্ড ইলেক্ট্রনিক শক পান। এতে প্রাণে বেঁচে গেলেও দাউদের দুটি হাত ও একটি পা নষ্ট হয়ে যায়। চিকিৎসক জানায়, দাউদের দুটো হাত জোড়া লাগানো যাবে। কিন্তু সেটা হবে অসাড়। প্রথমে তারা কনুই পর্যন্ত কেটে ফেলে, পরে পুরো হাত দুটোই কেটে ফেলতে হয়।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সানা ছুটে যায় হাসপাতালে। সানা জানান, অপারেশন থিয়েটার থেকে তাকে ৮ ঘণ্টা পর বের করা হয় দাউদকে। আমি তার কানের কাছে ফিসফিস করে কথা বলতেই সে চোখ খোলে। বললাম, ভয় পেও না আমি তোমার সাথেই আছি। কখনোই তোমাকে ছেড়ে যাব না।

দাউদ বলেন, আমি ভাবলাম যদি তাকে (সানা) আমার সঙ্গে থাকতে বলি, তাহলে সে আমার সঙ্গেই থাকবে। কিন্তু আমার দিক থেকে কোনো চাপ এলে তার পুরো জীবনটাই ব্যর্থ হয়ে যাবে। তাই ব্যাপারটি আমি তার ওপরে ছেড়ে দিলাম।

সানা বলেন, তখন আমি একটা সিদ্ধান্ত নিলাম, তাকে যখন আমি কথা দিয়েছি সেই কথা আমি রাখবো। আমি অন্য কোনো কিছু ভাবতে পারছিলাম না। শুধু দাউদের কথাই ভাবছিলাম।

সানা দাউদকে অভয় দিয়ে বলেন, আমি তো আছি। খোদা যদি তোমার হাত দুটো নিয়ে থাকেন, তাহলে তিনি তোমার কাছে আমাকে পাঠিয়েছেন।

তবে দাউদ ভেঙে পড়েননি। জীবনকে সুন্দর করার জন্য তিনি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। দাউদ প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃত্রিম অঙ্গ-প্রতঙ্গের জন্য আবেদন করেছেন। এই আবেদনরে পরিপ্রেক্ষিতে সরকার যদি ছোটোখাটো কোনো ব্যবসার ব্যবস্থা করে দেন।

শেফা/এফ

RTV Drama
RTVPLUS