logo
  • ঢাকা বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

অযোধ্যার রায় নিয়ে রিভিউ পিটিশনের সিদ্ধান্ত ইসলামী দলগুলোর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:০২ | আপডেট : ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:২১
বাবরি মসজিদ
বাবরি মসজিদ (ছবি সংগৃহীত)
অযোধ্যা রায় চ্যালেঞ্জ করে রিভিউ পিটিশনের ইঙ্গিত মিলেছিল শুক্রবারই। এবার সেই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিলো অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড (এআইএমপিএলবি)। অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দিয়েছে, তা পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়ে ফের আদালতের দ্বারস্থ হবে বলে জানিয়েছে তারা।

অযোধ্যায় মসজিদ তৈরির জন্য সুপ্রিম কোর্ট যে বিকল্প পাঁচ একর জমি দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে, শুক্রবারই তা নিতে আপত্তি জানায় এই মামলার অন্যতম আবেদনকারী সংগঠন জমিয়ত উলেমা-এ-হিন্দ। কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকের পর তারা জানায়, মসজিদের বিকল্প হিসেবে টাকা বা জমি কোনোটা নিতেই রাজি নয় তারা। তারা রায় পর্যালোচনারও আবেদন জানাতে পারে বলে জানিয়েছে।

এ বিষয়ে আইনি দিক খতিয়ে দেখে সংগঠনের প্রেসিডেন্ট আরশাদ মাদানির নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং কমিটি। জমিয়ত উলেমা-এ-হিন্দের উত্তরপ্রদেশের প্রধান মৌলানা আশাদ রশিদি জানিয়েছেন, ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে দুটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একটি হলো মসজিদের বিকল্প জমি নিয়ে ও অপরটি রায় পর্যালোচনার আবেদন নিয়ে। সর্বসম্মতভাবে ওয়ার্কিং কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে মসজিদের বিকল্প হিসেবে বিশ্বের কোনও কিছুকে মেনে নেয়া হবে না। টাকা বা জমি কোনোটাই নয়। অন্য কোনও মুসলিম সংগঠনও এই বিকল্প মেনে নিলে সেটা ঠিক কাজ হবে না। রিভিউয়ের ব্যাপারেও চিন্তাভাবনা চলছে বলে জানানো হয়

---------------------------------------------------------------
আরো পড়ুন: রাম মন্দিরের জন্য মুসলিমদেরও খুশি হওয়া ‍উচিত: রামদেব
---------------------------------------------------------------

রোববার বোর্ডের বৈঠকের পর মৌলানা আর্শাদ মাদানি জানান, তারা রিভিউ পিটিশন করবেন। দিল্লিতে এআইএমপিএলবি-এর সেক্রেটারি সাফরইয়াব জিলানি বলেন, মসজিদের জমি আল্লাহ তায়লার। এটা শরিয়তি আইনের অধীন বিষয়। এটা কাউকে দেয়া যায় না। মসজিদের জন্য শীর্ষ আদালত বিকল্প যে পাঁচ একর জমি দেয়ার কথা বলেছে, সেটিও মেনে নেয়া হবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড। মসজিদের বিকল্প কিছু হয় না, এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে বোর্ড।

এআইএমপিএলবি-এর বৈঠকে যোগ দিয়ে জমিয়তের মাদানি আরও বলেন, আমরা খুব ভালো করে জানি রিভিউ পিটিশন খারিজ করে দেয়া হবে। তবু আমরা মনে করি রিভিউ পিটিশন দাখিল করা উচিত। এটাই সঠিক।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়