logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬

খোঁজ মেলেনি ব্রিটেনে চুরি যাওয়া স্বর্ণের কমোডের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:০৫
ব্রিটেন, স্বর্ণের কমোড, চুরি
ছবি: সংগৃহীত
যুক্তরাজ্যের ব্লেনহেইম প্রাসাদ থেকে স্বর্ণের তৈরি একটি কমোড চুরি হওয়ার প্রায় দুদিন পরেও সেটির খোঁজ পাওয়া যায়নি। একদল চোর শনিবার ভোর রাতের দিকে প্রাসাদের ভেতর ঢুকে ১৮ ক্যারেট সোনার তৈরি কমোডটি চুরি করে নিয়ে যায়।

ওই কমোডটি আসলে একটি শিল্পকর্ম। এর নাম রাখা হয়েছে আমেরিকা। ইতালীয় এক শিল্পী মরিজিও কাত্তেলানের শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর একটি অংশ ছিল এই কমোডটি। গত বৃহস্পতিবার প্রদর্শনীটি শুরু হয়েছে।

যারা প্রাসাদ পরিদর্শন করতে যেতেন তাদেরকে এটি ব্যবহার করতে আমন্ত্রণ জানানো হতো। তবে সেখানে যাতে লম্বা লাইন তৈরি হয়ে না যায় সেজন্য প্রত্যেককে সর্বোচ্চ তিন মিনিট করে সময় দেয়া হতো।

খবরে বলা হয়েছে, ভোরের দিকে কমোডটি চুরি গেছে এবং এর পর থেকে সেটিকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। এই চুরির ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে ৬৬ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ বলছে, কমোড চুরি যাওয়ার কারণে টয়লেটের বড় রকমের ক্ষতি হয়েছে। তারা বলছেন, কমোডটি খুলে নেয়ার কারণে ওই জায়গাটি পানিতে ভেসে গেছে।

১৮শ’ শতাব্দীর ব্লেনহেইম প্রাসাদ বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ। ব্রিটেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিলের জন্ম হয়েছিল এই ভবনে।

কমোড চুরির পর প্রাসাদটি আপাতত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। পুলিশ বলছে, চুরির ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। কিন্তু এর আগে সোনার তৈরি এই কমোডের নিরাপত্তার ব্যাপারে প্রাসাদের লোকজন সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছিলেন।

পুলিশের একজন কর্মকর্তা বলছেন, একদল অপরাধী দুটি গাড়িতে করে এসে কমোডটি চুরি করে নিয়ে গেছে বলে তারা ধারণা করছেন। তিনি বলেন, এটি এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। তবে এটি খুঁজে পাওয়ার জন্য আমরা সর্বাত্মক তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছি। এর সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বিচার করা হবে।

সোনার কমোড চুরির পর ব্লেনহেইম প্রাসাদের প্রধান নির্বাহী বলেছেন, নজিরবিহীন এই চুরির ঘটনায় তারা খুব দুঃখ পেয়েছেন। তবে এতে যে কেউ আহত হয়নি তাতে তারা কিছুটা হলেও স্বস্তি পাচ্ছেন।

তবে তারা বলছেন যে, এরকম একটি ঘটনার পর এই শিল্পকর্মটি এখন ‘অমর’ হয়ে থাকবে। উল্লেখ্য, এই সোনার কমোডটি ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অফার করা হয়েছিল।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়