logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

প্রথম দফা ভোটের পর বিজেপির চিন্তা বেড়েছে: আনন্দবাজার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৩ এপ্রিল ২০১৯, ১৭:৪৪
ছবি: ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার

ভারতের ২০টি রাজ্যে শুক্রবার লোকসভা নির্বাচনের ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই প্রথম দফার ভোটের পর দেশটির ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) চিন্তা বেড়েছে।

শনিবার প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এই দাবি করেছে ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, গতকাল যখন সব আসনের হিসাব আসেনি, তখনই দিল্লিতে বিজেপির এক নেতা দাবি করে বসেন যে ৯১টির ৩৬টি আসন পাচ্ছে দলটি। কিন্তু এক দিনের মধ্যেই বিজেপি মনোভাব পাল্টে গেছে।

আরও বলা হয়, গতকাল অনেক রাত পর্যন্ত জেগেছিলেন বিজেপির নেতারা। যে ২০টি রাজ্যে ভোট হয়েছে, সেগুলোর তথ্য সংগ্রহ করেছেন। তার ভিত্তিতে এখন আর কোনও আসনের দাবি করছে না দলটি।

বিজেপির এক নেতার বরাত দিয়ে গণমাধ্যমটি জানায়, অধিকাংশ রাজ্যে গতবারের লোকসভা নির্বাচনের চেয়ে কম ভোট পড়েছে। গত ভোটে মনমোহন সিংহ সরকারকে সরিয়ে নরেন্দ্র মোদিকে ক্ষমতায় আনার একটি তাগিদ ছিল জনতার মধ্যে।

আরও জানায়, মোদি-ঝড় ছিল সারাদেশে। কিন্তু এবার তেমন কোনও ঝড় কোথাও দেখা যাচ্ছে না। মোদিকে হারানোর বড় ধরনের কোনও পরিকল্পনাও নেই। তাই দেশজুড়ে মোদির পক্ষে জোরালো হাওয়া না থাকায় স্থানীয় বিষয়গুলো বড় হচ্ছে।

গণমাধ্যমটির মতে, ভোট শুরুর অনেক আগে থেকেই বুথকে শক্ত করতে আক্রমণাত্মক ছিলেন নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহ। কিন্তু এখন বিজেপির অনেকেই মনে করছেন, ভোটারদের বুথ পর্যন্ত নিয়ে যেতে পারছে না দলটির কর্মীরা।

গণমাধ্যমটিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, বিজেপি ইনসাইডার নামের একটি টুইটার হ্যান্ডেল আছে। এটি সাধারণত বিজেপির ভেতরের খবর দেয় বলে মনে করা হয়। এর অনুমান অনেক সময় মিলেও যায়।

এদিন সকালে এই টুইটারের এক টুইটে বলা হয়, দলের সাম্প্রতিকতম অভ্যন্তরীণ সমীক্ষা অনুযায়ী, গোটা দেশে বিজেপি ১৫০-১৬০টি আসনে জয়লাভ করতে পারে। উত্তরপ্রদেশ, বিহার ও মহারাষ্ট্রে বড় ধরনের পরাজয়ের স্বাদ পাবে দলটি।

কে/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়