Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮
discover

‘ভয় ছেলে-বউমা আমার ওপর ফের চড়াও না হয়’ 

‘ভয় ছেলে-বউমা আমার ওপর ফের চড়াও না হয়’ 
ছবি: সংগৃহীত

৮৬ বছরের বৃদ্ধা শেফালি দত্ত। তিনি চার মেয়ে ও দুই ছেলের জননী। কিন্তু সম্পত্তি লিখে দিতে ছোট ছেলে ও পুত্রবধূর অত্যাচারে ঘর ছেড়ে পালিয়ে মেঝ মেয়ের বাড়িতে আশ্রয় নেন তিনি। সেখান থেকে নিজের বাড়ি ফিরতে আদালতে যান ওই নারী। অবশেষে আদালতের নির্দেশে পুলিশ পাহারায় বাড়ি ফিরেছেন তিনি। তার নিরাপত্তায় বাড়িতে পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

রোববার ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া শহরের পালিতবাগান এলাকায়। খবর আনন্দবাজার অনলাইনের।

সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা বাঁকুড়া সদর থানার আইসি-কে নির্দেশ দেন, প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা দিয়ে ওই বৃদ্ধাকে নিজের বাড়িতে ফিরিয়ে দিতে হবে। সেই নির্দেশ অনুযায়ী রোববার বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ ওই বৃদ্ধাকে বাড়িতে পৌঁছে দেয়।

দীর্ঘ চার মাসের আইনি লড়াই শেষে নিজের বাড়িতে ফিরতে পেরে আনন্দিত বৃদ্ধা শেফালি। তিনি বলেন, ‘অনেক কষ্ট করে দু’ছেলেকে বড় করেছিলাম। তাদের একজন আমাকে এভাবে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেবে ভাবিনি। আদালত সুবিচার করেছে। আমি নিজের বাড়িতে ফিরতে পারলাম। এখন শুধু একটাই ভয় যে ফের ছেলে ও বউমা আমার ওপর চড়াও না হয়।’

তবে মায়ের তোলা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত ছেলে প্রবীর দত্ত ও পুত্রবধূ শম্পা দত্ত। আদালতের নির্দেশে বৃদ্ধার বাড়িতে রোববার থেকে আগামী তিনদিন পুলিশ মোতায়েন থাকবে বলে জানিয়েছেন বৃদ্ধার আইনজীবী সৌগত মিত্র।

তিনি বলেন, পরবর্তীতে বৃদ্ধার ওপর অত্যাচার হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি।

এনএইচ/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS