Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:১০
আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:১৫

১০০ নম্বরের পরীক্ষা দিয়ে পেলো ১৯৮, ২০০

১০০ নম্বরের পরীক্ষা দিয়ে পেলো ১৯৮, ২০০

মেধা তালিকায় চমক। বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছে না বিশ্বভারতীর। ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় একশো নাম্বারের। কিন্তু প্রার্থীদের অনেকেই পেয়েছে ১৯৮ ও ২০০ নাম্বার।এমন মেধাতালিকা দেখে তাজ্জব পরীক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার বিশ্বভারতীয় ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয় এমএড-এ ভর্তি পরীক্ষার মেধা তালিকার ফলাফল। সেই মেধা তালিকায় কীভাবে এমন গাফিলতি হয় তা ভেবেই পাচ্ছেন না পরীক্ষার্থীরা। এনিয়ে কোনও সদুত্তর দিতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর অনলাইনে নেওয়া হয় এমএড-এ ভর্তি পরীক্ষা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০টি আসনের জন্য পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন বিশ্বভারতী ও অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থীরা। ওইসব আসনের মধ্যে ২৫টি আসন বহিরাগতদের জন্য সংরক্ষিত। একশো নম্বরের পরীক্ষায় ৬০ নম্বর লিখিত ও ৪০ নম্বর একাডেমিক স্কোরের উপরে। পরীক্ষার পর মেধাতালিকার ভিত্তিতেই এমএড পড়ার সুযোগ পান পরীক্ষার্থীরা।

এদিকে মঙ্গলবার সেই মেধাতালিকা প্রকাশিত হতেই দেখা দেয় সমালোচনার ঝড় উঠে। দেখা যাচ্ছে ল্যাঙ্গুয়েজ গ্রুপে ২ পরীক্ষার্থী ১০০ নম্বরের মধ্যে পেয়েছেন যথাক্রমে ২০০.২৮ ও ১৯৮.৩৮৫ নম্বর। সমাজবিজ্ঞান বিভাগের দুই পরীক্ষার্থী যথাক্রমে পেয়েছেন ১৯৬.৩৬৭ ও ১৫১.২৭৫। কোন পর্যায়ের গাফিলতি হলে একশোর মধ্যে কেউ ২০০ পেতে পারে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এতে চূড়ান্ত বিভ্রান্তিতে পড়েছেন পরীক্ষার্থীরা। তাদের দাবি, দ্রুত ওই মেরিট লিস্ট বাতিল করে নির্ভূল মেধাতালিকা প্রকাশ করুক বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

খবর: জি ২৪ ঘণ্টা

এমএন

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS