logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

ধর্ষককে বিয়ের প্রস্তাব, তোপের মুখে ভারতের প্রধান বিচারপতি

সংগৃহীত

জেল এড়াতে ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীকে বিয়ের জন্য এক ধর্ষককে পরামর্শ দেন ভারতের প্রধান বিচারপতি শারদ অরবিন্দ বোব্দে। বিচারকের এমন পরামর্শ দেয়ার প্রতিবাদে পিটিশন করেছেন দেশটির মানুষ। এই পিটিশনে পাঁচ হাজারেরও বেশি মানুষ স্বাক্ষর করেছেন, যাতে ওই বিচারপতির পদত্যাগের দাবি তোলা হয়েছে।

আরও পড়ুন : স্বামীকে স্কুটিতে করে শ্বশুরবাড়ি গেলেন নতুন বউ!

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তিন বিচারকের এক বেঞ্চে প্রধান বিচারপতি হিসেবে ছিলেন শারদ অরবিন্দ বোব্দে। তিনি ধর্ষণে অভিযুক্তের কাছে জানতে চান, ধর্ষণের শিকার মেয়েকে সে বিয়ে করবে কিনা? এছাড়াও বলেন, আপনি যদি ধর্ষণের শিকার মেয়েকে বিয়ে করতে চান তাহলে আপনাকে সহায়তা করতে পারি আমরা। তা না হলে আপনি চাকরি হারাবেন এবং জেল হবে আপনার।

আরও পড়ুন : বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে কারাদণ্ড পাওয়া জুটির সাজা মওকুফ

এদিকে পিটিশনে নারী অধিকার কর্মী এবং উদ্বিগ্ন নাগরিকরা ক্ষোভ প্রকাশ করে লিখেছেন, বোব্দের মন্তব্যে ক্রুদ্ধ তারা এবং তার এ বিবৃতি প্রত্যাহার করে ক্ষমা চাওয়ার জন্যও আহ্বান করা হয়েছে। অপ্রাপ্তবয়স্ক একটি মেয়েকে ধর্ষণের মামলা নিষ্পত্তিতে আপস হিসেবে ধর্ষণের শিকার মেয়েকে বিয়ের যে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে তা ন্যক্কারজনকের থেকে বেশি খারাপ এবং এতে ন্যায় বিচারের অধিকার থেকে ক্ষুণ্ণ হয়েছে ধর্ষণের শিকার পরিবার। ওই ধর্ষককে ধর্ষণের শিকার মেয়েকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে সারাজীবন ধর্ষণের জন্য তুলে দিচ্ছেন বিচারপতি।

আরও পড়ুন : ভারতে স্বর্ণের দাম কমলো ১০ হাজার

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS