logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ০৫ মার্চ ২০২১, ১১:২৮
আপডেট : ০৬ মার্চ ২০২১, ০৮:৩৩

তিমির বমি বেচে কোটিপতি!

thai woman finds lump of whale vomit worth over 250000 Dollar
সংগৃহীত

সমুদ্র সৈকতের পাশেই বাড়ি। সময় কাটাতে সৈকতে হাঁটতে বেরিয়েছিলেন। তখনই সৈকতে আজব এক জিনিস দেখতে পান থাইল্যান্ডের ৪৯ বছর বয়সী এক নারী। এরপর সেই আজব জিনিস বাড়িতে নিয়ে আসেন। পরে প্রতিবেশী এবং অন্যান্যদের দেখানোর পর জানতে পারেন মাছের মতো আঁশটে গন্ধ বের হওয়া এই জিনিসটি আসলে বহু মূল্যবান তিমির বমি বা অ্যামবারগ্রিস।

আরও পড়ুন : প্রেম করায় মেয়ের মাথা কেটে থানার দিকে যাচ্ছিলেন বাবা!

সিরিপর্ন নিয়ামরিন নামে ওই নারী থাইল্যান্ডের নাখন সি থাম্মারাট প্রদেশের বাসিন্দা। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি ওই তিমির বমি দেখতে পান তিনি। পরে সেটি বাড়ি নিয়ে আসেন সিরিপর্ন। কিন্তু এটা কি তিনি জানতেন না। কিন্তু প্রতিবেশীরা তাকে জানান এটি অ্যামবারগ্রিস।

এরপরই সেটি পরিষ্কার করে সিরিপর্ন। তারপর ১২ ইঞ্চি পুরু এবং ২৪ ইঞ্চি লম্বা অ্যামবারগ্রিস বেরিয়ে আসে। সিরিপর্ন যে তিমির বমিটি পেয়েছেন আন্তর্জাতিক বাজারে সেটির দাম আড়াই লাখ মার্কিন ডলার বা প্রায় ২ কোটি ১৩ লাখের বেশি।

আরও পড়ুন: দেখতে খারাপ হওয়ায় হাসাহাসি, চেহারাই বদলে ফেললেন যুবক!

অ্যামবারগ্রিস আসলে তিমির দেহেরই একটি অংশ। একে ‘ভাসমান সোনা’ এবং ‘সমুদ্রের গুপ্তধন’ও বলা হয়ে থাকে। মূলত স্পার্ম হোয়েলের শরীরেই এই জিনিসটি তৈরি হয়। সেখান থেকেই বমির মাধ্যমে এটি সমুদ্রে মিশে যায়।

প্রথমে এটা থেকে মাছের মতো আঁশটে গন্ধ বের হয়। তবে পরে খুবই সুন্দর গন্ধ বের হয়। এর ফলে এটি থেকে সুগন্ধি তৈরি করা হয়। আন্তর্জাতিক বাজারে এই অ্যামবারগ্রিসের দামও অনেক বেশি।

আরও পড়ুন : স্বামীকে স্কুটিতে করে শ্বশুরবাড়ি গেলেন নতুন বউ!

RTV Drama
RTVPLUS