logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

আবারও নিউজিল্যান্ডের সেই দুই মসজিদে হামলার হুমকি

New Zealand police charge man over online threat to Christchurch mosques
ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদ

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে ২০১৯ সালে যে দুটি মসিজদে হামলার ঘটনা ঘটেছিল, সেখানে ফের হামলার ‍হুমকি দিয়েছেন এক ব্যক্তি। ২৭ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি লিনউড ইসলামিক সেন্টার এবং আল নুর মসজিদে হামলার হুমকি দিয়েছেন।

ওই ব্যক্তি অনলাইনে হুমকি দেয়ার ঘটনায় তাকে গ্রেপ্তার করেছে নিউজিল্যান্ডের পুলিশ। শুক্রবার তাকে ক্রাইস্টচার্চের জেলা আদালতে তোলা হতে পারে। তার বিরুদ্ধে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, চলতি সপ্তাহে ওই হামলার হুমকি সম্বলিত বার্তা অনলাইনে পোস্ট করে ওই ব্যক্তি। এই হুমকির ঘটনায় পুলিশ প্রাথমিকভাবে বৃহস্পতিবার দুইজনকে গ্রেপ্তার করে। পরে কোনও অভিযোগ ছাড়াই একজনকে ছেড়ে দেয়া হয়।

ক্যান্টারবেরি জেলা কমান্ডার সুপারেন্ডেন্ট জন প্রাইস বলেছেন, বৃহস্পতিবার লিনউড এবং সেন্ট আলবান্সে দুটি সার্চ ওয়ারেন্ট নিয়ে অভিযান চালায় পুলিশ। সতর্কতার অংশ হিসেবে আর্মড অফেন্ডার্স স্কয়াডও এই অভিযানে অংশ নেয়।

নিউজহাব জানিয়েছে, সশস্ত্র পুলিশ দুটি বাড়িতে অভিযান চালায়। আগামী ১৫ মার্চ ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে হামলার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তিতে গাড়ি বোমা দিয়ে সন্ত্রাসী হামলা ঘটানোর হুমকির প্রেক্ষিতে এই অভিযান চালানো হয়।

তবে হুমকির বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি প্রাইস। কিন্তু হুমকিদাতার বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়ার মতো যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। এদিকে হামলার হুমকির পর মসজিদ দুটিতে পরিদর্শন করেছে পুলিশ এবং মুসলিম কমিউনিটিকে সতর্ক করে দিয়েছে তারা।

উল্লেখ্য, ব্রেন্টন ট্যারেন্ট নামে এক অস্ট্রেলিয়ান শ্বেতাঙ্গ যুবক ২০১৯ সালে ক্রাইস্টচার্চে মসজিদ দুটিতে বন্দুক দিয়ে হামলা চালায়। সন্ত্রাসী ট্যারেন্টের নির্বিচার হামলায় ৫১ জন মুসল্লির মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো প্যারোলহীন যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয় তাকে।

RTV Drama
RTVPLUS