logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭

ইন্স্যুরেন্সের টাকার জন্য গর্ভবতী স্ত্রীকে পাহাড় থেকে ফেলে হত্যা

Turkish man pushes pregnant wife off cliff after taking selfies
সংগৃহীত

ইন্স্যুরেন্সের টাকার লোভে গর্ভবতী স্ত্রীকে পাহাড় থেকে ফেলে দিয়ে হত্যা করেছেন একজন স্বামী। পাহাড় থেকে ফেলে দেয়ার আগে স্ত্রীর সঙ্গে সেলফিও তোলেন তুরস্কের ব্যক্তি।

তুর্কি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নিজের ৩২ বছর বয়সী স্ত্রী সেমরা আয়সাল এবং তাদের অনাগত সন্তানকে হত্যার ঘটনায় হাকান আয়সালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দ্য সান জানিয়েছে, ২০১৮ সালের জুনে মুগলা তুর্কির বাটারফ্লাই ভ্যালিতে এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন : চিকিৎসককে ফি দিতে না পারায় প্রেসক্রিপশন কেটে দিলেন

৪০ বছর বয়সী হাকান ও তার স্ত্রী পাহাড়ের চূড়ায় উঠে ছবি তোলেন। পরে সাত মাসের গর্ভবতী সেমরাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন হাকান। সেমরা এক হাজার ফুট নিজে পড়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে মৃত্যু হয় সেমরার।

সেমরার মৃত্যুর পর লাইফ ইন্সুরেন্সের টাকা তোলার চেষ্টা করেন হাকান। সেমরার নামে ৫৭ হাজার ডলারের (৪ লাখ লিরা) ইন্স্যুরেন্স করেছিলেন তিনি। কিন্তু পুলিশি তদন্তের কারণে তাকে টাকা দেয়নি ইন্সুরেন্স কোম্পানি।

আরও পড়ুন : পাকিস্তানি তরুণীর ‘পাওরি’ ভারতেও তুললো ঝড়

তুর্কি কৌঁসুলিরা জানিয়েছেন, এই হত্যাকাণ্ড কোনও ‘দুর্ঘটনা’ নয়। তার টাকার দরকার ছিল এজন্য পূর্ব পরিকল্পিতভাবে স্ত্রীকে হত্যা করেছেন হাকান। এরপর আদালত হাকানের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

সেমরার ভাই নাইম ইয়োলচু বলেছেন, আমার বোন মারা যাওয়ার পর কোনও আবেগ প্রকাশ করেননি হাকান। আমরা যখন সেমরার মরদেহ ফরেনসিক মেডিসিন ইন্সটিটিউট থেকে আনতে যাই, হাকান তখন গাড়িতে বসেছিলেন। আমরা ভেঙে পড়েছিলাম। কিন্তু হাকান স্বাভাবিক ছিল।

আরও পড়ুন : অস্ট্রেলিয়ায় সংবাদ কন্টেন্ট দেখানো বন্ধ করলো ফেসবুক

RTV Drama
RTVPLUS