logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭

ফ্রান্সে নতুন বছরের উদযাপন ঠেকাতে এক লাখ পুলিশ মোতায়েন

France mobilises 100,000 police to stop New Year's Eve gatherings
সংগৃহীত
করোনাভাইরাসে নাকাল ফ্রান্স এবার বছরের শেষরাতে মানুষজনকে পার্টি করা ঠেকাতে এবং কারফিউ কার্যকর করতে এক লাখ পুলিশ ও সামরিক পুলিশ মোতায়েন করেছে। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দেশটির বিভিন্ন শহরে রাত্রিকালীন কারফিউ বলবৎ রয়েছে। খবর বিবিসির।

এছাড়া গাড়িতে যাতে আগুন দেয়ার মতো ঘটনা না ঘটে সেজন্যও বাড়তি নিরাপত্তা নেয়া হয়েছে। দেশটির বছরের শেষ রাতে সাধারণত গাড়িতে আগুন দেয়ার মতো ঘটনা ঘটে থাকে। ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত ২৬ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে, যা আক্রান্তের দিকে দিয়ে বিশ্বে পঞ্চম। এসময় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৬৪ হাজারের বেশি মানুষের।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ইউরোপের অধিকাংশ দেশই অনেকটা নিরিবিলিভাবে নতুন বছরকে বরণ করে নেয়ার উদযাপন করছে। এমন সাদামাটা উদযাপনের তালিকায় রয়েছে ফ্রান্সও। ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড ডারমানিন সিটি সেন্টারগুলোতে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের দৃশ্যমান উপস্থিতির নির্দেশ দিয়েছে। স্থানীয় রাত ৮টা থেকে থেকেই তাদের সেখানে থাকতে বলা হয়েছে। এসময় রাত্রিকালীন কারফিউ শুরু হয়।

সন্ধ্যা থেকে প্যারিসের মেট্রো লাইনের অর্ধেক বন্ধ করে দেয়া হবে। এছাড়া দেশজুড়েও গণপরিবহন বন্ধ করে দেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন ডারমানিন। এদিকে করোনার নতুন ধরন ছড়িয়ে পড়ার পরও এখনও স্থানীয় পর্যায়ে লকডাউনের প্রয়োজনীয়তা নেই বলে জানিয়েছেন সরকারের একজন মুখপাত্র। এর আগে ফ্রান্সে দুটি জাতীয় লকডাউন দেয়া হয়েছিল।

RTV Drama
RTVPLUS