logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯ মাঘ ১৪২৭

মিষ্টি প্রেমের কাহিনী, বাবার বিয়ে দিলেন ছেলে

তরুণ ও স্বপ্না
জীবনের গতিপথ যে সবসময় একই ছন্দে চলবে তা কিন্তু নয়। বাঁধা যেমন আসবে তেমনি মসৃণ পথ চলাও থাকবে। কখনও জীবন থমকে গেলে মনে হয় এই বুঝি সব শেষ হয়ে এলো। কিন্তু না, জীবনের বাঁকেই হয়তো অপেক্ষা করছে বেঁচে থাকার রসদ।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে তরুণ কান্তি পাল ৬৬ বছর বয়সে ৬৩ বছরের স্বপ্না রায়ের সঙ্গে প্রথমে প্রেম, তারপর বিয়ে করে সোশ্যাল মিডিয়ায় হইচই ফেলে দিয়েছেন।

তাদের প্রেমের স্বীকৃতি দিয়ে বিয়ের আয়োজন যে তরুণ কান্তি পালের একমাত্র ছেলে সায়ন পালই করেছেন।

তরুণ কান্তি পাল দশ বছর আগে জীবনসঙ্গী হারান। এখন একলা থাকাটা তার অভ্যাস  হয়ে উঠেছে। ছেলে কানাডা প্রবাসী হওয়ায় তার একাকিত্ব দিন দিন বাড়ছিল। এরইমধ্যে তরুণ অবসরে যান। একাকিত্বের ভর আরও বাড়ে। ভট্টনগরের রামকৃষ্ণ মঠে প্রতিদিন যেতেন তরুণ। বছর দুয়েক আগে সেখানেই স্বপ্না রায়ের সঙ্গে প্রথম দেখা হয়। এরপর, মাঝে মাঝে দেখা, তারপর ফোনালাপ, তারপর দিন রাত কথা আদান প্রদান। স্বপ্না রায় ভালোবাসার কথা জানায় তরুণ কান্তিকে। এরপর তারা একসঙ্গে থাকতে সময় কাটাতে চায়। তরুণ ছেলের মতামত চাইলে তিনিও সম্পতি দিয়ে বিয়ের আয়োজনটি করেন। বাবার বিয়ে দিয়ে সায়ন পাল খুশি।

তরুণ কান্তি পাল সাংবাদিকদের জানান, জীবন একটি দীর্ঘ যাত্রা। সেই যাত্রায় কাউকে সঙ্গে নিতে লাগে। দুর্ভাগ্যক্রমে যদি সঙ্গী চলে যায় ছেড়ে। তবে তাদের অসমাপ্ত যাত্রায় অন্য কাউকে অংশীদার হিসাবে বেছে নিতে হয়।

এমকে

RTV Drama
RTVPLUS