logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭

ইরানের সামরিক মহড়ায় মার্কিন 'ডামি' রণতরী ধ্বংস করা হয়

আরটিভি নিউজ
|  ২৯ জুলাই ২০২০, ১৯:৩৮ | আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২০, ২০:০০
Arranged warships
সাজানো রণতরী
পারস্য উপসাগর এবং কৌশলগত হরমুজ প্রণালীর বিস্তীর্ণ এলাকায় ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি'র সামরিক মহড়ায় যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহী রণতরীর আদলে সাজানো একটি 'ডামি' বা সাজানো রণতরী মিসাইল ছুড়ে ধ্বংস করে ইরান।

বিবিসির খবরে বলা হয়, এই মহড়ার সময় এতো বেশি গোলাগুলি হয় যে, পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে সংযুক্ত আরব আমিরাত, কুয়েত এবং কাতারে মার্কিন সামরিক ঘাঁটিগুলোতে সাময়িক সতর্কাবস্থা জারি করে যুক্তরাষ্ট্র।

এই মহড়াকে ইরানের দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং বেপরোয়া আচরণ বলে নিন্দা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী। সেই সঙ্গে এই আচরণকে ভীতি প্রদর্শন এবং চাপ প্রয়োগের চেষ্টা বলেও বর্ণনা করা হয়েছে।

হজরত মোহাম্মদ (সা.) ৪র্থ এই সামরিক মহাড়াটি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।

ভূমধ্যসাগরে নিয়মিত টহল দিয়ে থাকে এমন একটি মার্কিন বিমানবাহী রণতরীর আদলে নকল একটি স্থাপনা তৈরি করা হয়। যেটির দুই পাশে মডেল যুদ্ধবিমান, রানওয়ে সাজানো  ছিল। এরপর বিভিন্ন দিক থেকে ওই নকল রণতরীটি লক্ষ্য করে মিসাইল নিক্ষেপ করা হয়। এছাড়া হেলিকপ্টার থেকেও রণতরীটি লক্ষ্য করে মিসাইল ছোঁড়া হয়।

ইরানের বিপ্লবী গার্ডের কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলেছেন যে, 'আজকের মহড়ার মধ্য দিয়ে বিমান ও নৌবাহিনীর আক্রমণ করার সক্ষমতা তুলে ধরা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ফিফথ ফ্লিটের মুখপাত্র কমান্ডার রেবেকা রিবারিচ বলেছেন, সমুদ্র চলাচলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সহযোগীদের সাথে যুক্তরাষ্ট্র প্রতিরক্ষা মহড়া চালিয়ে থাকে। তবে ইরান আক্রমণাত্মক মহড়া চালিয়েছে যা ভীতি প্রদর্শন এবং চাপ প্রয়োগের এক প্রকার চেষ্টা।

আরও পড়ুন:  টিকটকের মাধ্যমে মার্কিন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করতে পারে চীন?

এমকে

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ২৭৪৫২৫ ১৫৭৬৩৫ ৩৬২৫
বিশ্ব ২১৩৮৩৯৭৯ ১৪১৬৬৫৯১ ৭৬৪০৫১
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়