logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

শ্রীদেবীর মৃত্যুতে যা বললেন টালিউড অভিনেত্রীরা

বিনোদন ডেস্ক
|  ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১১:৫১ | আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১১:৫৭
সুপারস্টার অভিনেত্রী শ্রীদেবী অনেক তারকার আইকন তিনি। তার অনবদ্য অভিনয়ে অনুপ্রাণিত হয়েছেন বাংলা ছবির জগতের অনেকেই। হঠাৎ এই অভিনেত্রীর চলে যাওয়া মেনে নিতে পারছেন না কেউই।

জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদার বলেন, মুম্বাইয়ে অনেকবারই তাকে সামনে থেকে দেখার সৌভাগ্য হয়েছে। অত্যন্ত সাদামাঠা ভাবেই থাকতেন। সহজ-সরল মনের একজন মানুষ ছিলেন। অথচ কতো বড়মাপের অভিনেত্রী তিনি। তার মুখটা চোখের সামনে ভেসে উঠলেই মনটা খারাপ হয়ে যাচ্ছে।

অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র বলেন, দারুণ একজন অভিনেত্রী ছিলেন। আসলে ছিলেন বলতে ইচ্ছা করছে না। খুব ভালোবাসি ওকে। আমি বিশ্বাসই করব না যে ও নেই। মানবই না শ্রীদেবী প্রয়াত। আমাদের কাছে উনি যেমনটি ছিলেন, তেমনই থাকবেন।

গার্গী রায়চৌধুরি বলছেন, শ্রীদেবী নেই, এ নিয়ে আলোচনা নয়, বরং শ্রীদেবী কীভাবে আমাদের মধ্যে রয়ে গেলেন, সে কথাই আজ বলা হোক। শ্রীদেবীর চোখে এক অদ্ভুত চমক ছিল। শুনেছিলাম কোনো শট দেয়ার আগে নাকি তিনি চোখ বন্ধ করে থাকতেন। শট শুরু হলেই চোখ খুলতেন। আর তখনই এক অসম্ভব চমক উজ্জ্বল্য ছিটকে বের হয়ে আসত তার চোখ থেকে। সেই চমকটা নিয়েই আমি বাঁচতে চাই। ১৫ বছর পর ছবির দুনিয়ায় কামব্যাক করেও যে দর্শকদের মন জয় করা যায়, সেটাও শিখিয়ে দিয়েছিলেন শ্রীদেবী। তার মতো লড়াইয়ের মানসিকতা সবার থাকে না। তার থেকে আরও অনেক কিছু পাওয়া বাকি ছিল। কিন্তু ছোট গল্পের মতো অসম্পূর্ণই রয়ে গেলো এই কাহিনি।

অভিনেত্রী চৈতি ঘোষাল বলেন, মনে হচ্ছে পরিবারের কাউকে হারালাম। ছোটবেলার একটা অংশ হারিয়ে গেলো আজ। ছোটবেলায় শ্রীদেবীর ভিডিও ক্যাসেট কিনে এনে তার ছবি দেখতাম। তার মতো পোশাক পরে সাজার চেষ্টা করতাম। ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’ যে কতবার দেখেছি, মনে নেই। শ্রীদেবীর গলায় কী একটা অসম্ভব সুন্দর মিষ্টতা ছিল। যা আর কারও ছিল না। ওকে দেখেই অভিনয়ের অনুপ্রেরণা পেয়েছি।

আরও পড়ুন:

এম/কেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়