logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ২ বৈশাখ ১৪২৮

পলিথিনে মোড়ানো প্রার্থীদের পোস্টার এখনও ঢাকাজুড়ে (ভিডিও)

পলিথিনে মোড়ানো প্রার্থীদের পোস্টার এখনও ঢাকাজুড়ে

ঢাকা এখন পোস্টারের নগরী। কিন্তু নির্বাচনী এসব পোস্টারের অধিকাংশই মোড়ানো ক্ষতিকর পলিথিনে। হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে পলিথিনে মোড়ানো প্রার্থীদের পোস্টার এখনও ঝুলছে পুরো ঢাকাজুড়ে। এমন প্রচারে অনেকটা অখুশি নগরবাসী। আর পরিবেশবাদীদের মতে, হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করেই চলছে এমন অনিয়ম, যার দায় এড়াতে পারে না নির্বাচন কমিশন। আর কমিশন বলছে বিষয়টি বাস্তবায়ন তাদের জন্য কষ্টসাধ্য।

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের ভোটের তারিখ যতই ঘনিয়ে আসছে নগর জুড়ে ততই শোভা পাচ্ছে পোস্টার। এসব নির্বাচনী পোস্টারের অধিকাংশই মোড়ানো ক্ষতিকর পলিথিনে। অথচ গেল ২২ জানুয়ারি হাইকোর্ট লেমিনেটিং পোস্টার বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে সিটি করপোরেশন ও নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দেয়।

পরিচ্ছন্ন ও আধুনিক নগরী গড়ার অঙ্গীকার নিয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গেলেও পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর পলিথিনে মোড়া তাদের পোস্টার ঝুলছে অলিগলিতে।

পরিবেশ দূষণের সঙ্গে নির্বাচনী প্রচারে ব্যবহৃত শব্দ যন্ত্রেও অনেকে অতিষ্ঠ। এসব বন্ধে প্রার্থীরা সচেতন হলেও মানছেন না বেশিরভাগ প্রার্থী।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মো. মোকছেদ আলী মোল্লা বলেন, আমরা নগরবাসীকে সেবা দিব। আমারা যদি নগরবাসীকে পলিথিনে আক্রান্ত করে ফেলি, এই পরিবেশটিকে দূষণমুক্ত না রাখতে পারি তাহলে আমাদের শুরুতে ব্যর্থতা।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী আ স ম ফেরদৌস আলম বলেন, ইতোমধ্যে যেগুলো ছাপিয়ে ফেলছি সেগুলো রাস্তায় শোভা পাচ্ছে। হাইকোর্টের নির্দেশের ওপর আমাদের শ্রদ্ধা থাকা উচিত।১৯৯৫ সালের বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইনের ৬/ক ধারায় বলা হয়েছে, পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর সামগ্রী প্রদর্শন, মজুদ, বিতরণ সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ। এই আইন মানা হচ্ছে না। আইন অমান্য করাই এখন রীতি হয়ে দাঁড়িয়েছে, বলছেন বেলা’র প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান।

তিনি বলেন, এখন নির্বাচনে প্রচারণাটা আধুনিক করতে হবে। আমরা সবদিক থেকে ডিজিটাল হয়ে যাই তবে নিজের ক্ষমতা প্রদর্শনের দিক থেকে আমরা কেন যে ডিজিটাল হই না।

আদালতের নির্দেশ হাতে না পেলেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর হোসেন বলেন, আমাদের নির্দেশ দেয়া আছে নতুন করে এই ধরনের পোস্টার যেন কেউ না দিতে পারে।

যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে পরিবেশ রক্ষা এবং ব্যয় কমিয়ে আধুনিক প্রচারের দিকে প্রার্থীদের মনোযোগের পাশাপাশি নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত নেবে এমন প্রত্যাশা নগরবাসীর।

এসএস

RTV Drama
RTVPLUS
  • ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন ২০২০ এর পাঠক প্রিয়