spark
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু ৩৭ জন, আক্রান্ত ২৯৪৯ জন, সুস্থ হয়েছেন ১৮৬২ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

চাঁদপুরে স্বামীর গলায় অস্ত্র ঠেকিয়ে গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ

চাঁদপুর প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ২৪ জুন ২০২০, ১৯:০২ | আপডেট : ২৪ জুন ২০২০, ১৯:২৫
Chandpur housewife raped holding weapon around her husband's neck
প্রতীকী ছবি

চাঁদপুরের রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নের লক্ষ্মীরচরে স্বামীর গলায় ধারালো অস্ত্র ঠেকিয়ে এক গৃহবধূকে (৩০) পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় ভুক্তভোগীর স্বামী চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও দুইজনসহ মোট ছয়জনের বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করেছেন।

এর আগে ধর্ষণের শিকার পরিবারটি দুই দিন ধরে অবরুদ্ধ ছিল। পরে গত সোমবার গ্রাম পুলিশের সাহায্যে তারা ওই চর থেকে ট্রলারে করে পালিয়ে জেলা শহরে এসে আশ্রয় নেন।

বর্তমানে ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূকে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর স্বামী জানান, একই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী মৃত ইয়াকুব গাজীর ছেলে সেলিম গাজী, ভুদাই গাজীর ছেলে বাবুল গাজী, শোবহান মল্লিকের ছেলে ফিরোজ মল্লিক, জাহাঙ্গীর প্রধানের ছেলে মোস্তফা প্রধানিয়া, শফী প্রধানিয়ার ছেলে সবুজ প্রধানিয়া ও শরফত আলী গাজীর ছেলে ফয়সাল গাজী সহ ৭/৮ জনের একটি দল গত রোববার (২১ জুন) ভোররাতে ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে তার গলায় ধারালো অস্ত্র ঠেকিয়ে বিনা কারণে তার স্ত্রীর ওপর একেক করে ৭/৮ জন পালাক্রমে ধর্ষণ করে। 

ধর্ষকরা যাওয়ার সময় তাকেসহ তার স্ত্রীকে হুমকি দিয়ে যায়। এই ঘটনা কাউকে জানালে গোটা পরিবারকে গুম করা হবে। শুধু তাই নয়, কোথাও গিয়ে যেনো চিকিৎসা না নিতে পারে। তার জন্য অবরুদ্ধ করে রাখা হয় পরিবারের সবাইকে। 

পরে তারা চর থেকে কৌশলে পালিয়ে আসেন জেলা শহরে। বর্তমানে হুমকির কারণে ফের চরে যেতে ভয় পাচ্ছেন তিনি। 

তার আশঙ্কা যেকোনো সময় ধর্ষণকারীরা আবারও বাড়িতে হামলা করতে পারে। এমন বর্বরতার ঘটনার বিচার করে অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানান তিনি।

চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নাসিম উদ্দিন জানান, গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় অভিযোগকারীরা থানায় এসে অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগটি এজহার হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে। ধর্ষণের ঘটনাটি আমরা তদন্ত করে দেখছি। যারা জড়িত থাকবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

ইতিমধ্যে অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশের ব্যাপক তৎপরতা চলছে। মামলাটি তদন্ত এবং আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তারের জন্য সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) হারুনুর রশিদকে দায়িত্বও দেয়া হয়েছে।

চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. সুজাউদৌলা রুবেল জানান, ধর্ষিতার চিকিৎসা ও পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হচ্ছে। নির্যাতিতার শারীরিক অবস্থা এখন বেশ স্থিতিশীল। তার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। ধর্ষণের আলামত নিশ্চিত হবে বলেও জানান তিনি।

এজে

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ১৭৮৪৪৩ ৮৬৪০৬ ২২৭৫
বিশ্ব ১২৪০৮১০৬ ৭২৩৭৬৪৬ ৫৫৭৭৯০
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়